কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

আমরা কি মুজিবনগরের শপথের মর্যাদা রক্ষা করছি?

যুগান্তর মুঈদ রহমান প্রকাশিত: ১৮ এপ্রিল ২০২১, ১০:২৩

গতকাল ১৭ এপ্রিল ছিল মুজিবনগর দিবস। ১৯৭১ সালের এই দিনে তৎকালীন কুষ্টিয়া জেলার মেহেরপুর মহকুমা থেকে ১২ কিলোমিটার পশ্চিমে ভারত সীমান্তলগ্ন বৈদ্যনাথতলা গ্রামের আম্রকাননে স্বাধীন বাংলাদেশের প্রথম সরকার শপথ গ্রহণ করে। শপথ গ্রহণের পরপরই জায়গাটির নাম হয়ে যায় মুজিবনগর। পরবর্তীকালে আরও কিছু গ্রাম সংযুক্ত করে মুজিবনগর উপজেলা গঠন করা হয়। কাকতালীয় বিষয় হলো, এই মুজিবনগরের অনতিদূরেই পলাশীর আম্রকানন অবস্থিত। ১৭৫৭ সালে এই পলাশীর আম্রকাননেই ইংরেজদের কাছে বাংলার স্বাধীন নবাব সিরাজ-উদ-দৌলার পরাজয়ের মধ্য দিয়ে বাংলা পরাধীন হয়ে যায়। ২১৪ বছর পর আবার সেই আম্রকাননের কাছে আরেকটি আম্রকাননে স্বাধীন বাংলাদেশের সূর্যোদয় হয়।



আমরা সবাই জানি, ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ পাকিস্তানি হানাদার বাহিনী বাংলাদেশের নিরস্ত্র মানুষের ওপর হত্যাযজ্ঞ শুরু করলে বাংলার অবিসংবাদিত নেতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পাকিস্তানিদের সঙ্গে সব সম্পর্ক ছিন্ন করে বাংলাদেশের স্বাধীনতা ঘোষণা করেন। কিন্তু একটি স্বাধীন দেশের জন্য স্বাধীনতার ঘোষণা অপরিহার্য হলেও তা বাস্তবায়িত করার জন্য যথেষ্ট নয়। প্রয়োজন যুদ্ধ পরিচালনার জন্য একটি কার্যকর সরকারের। সেই প্রয়োজন সামনে রেখে ১৯৭১ সালের ১০ এপ্রিল গঠিত হয় একটি সরকার। সেখানে স্বাধীন বাংলাদেশের শুরু হিসাবে ধরা হয়েছিল ১৯৭১ সালের ২৬ মার্চ অর্থাৎ স্বাধীনতার ঘোষণার দিনটিকে। সেই সঙ্গে স্বাধীনতার সনদও তৈরি করা হয়। কিন্তু তা পাঠ করে শোনানো হয় ১৭ এপ্রিল, শপথের দিনে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

আরও