কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

বদলেছে অপরাধের ধরন

বণিক বার্তা প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০, ০২:০১

কভিড-১৯-এর প্রাদুর্ভাব বদলে দিয়েছে মানুষের দৈনন্দিন জীবনযাত্রার অনেক কিছুই। পরিবর্তন এসেছে পেশায়। সেই সঙ্গে বদলে যেতে শুরু করেছে অপরাধের ধরন। সাধারণ অপরাধের তুলনায় আর্থিক প্রতারণামূলক অপরাধে সম্পৃক্ততা বেড়েছে অপরাধীদের। নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের প্রভাবে সৃষ্ট আর্থিক সংকটই এ ধরনের অপরাধ সংঘটনের অন্যতম কারণ বলে মত বিশেষজ্ঞদের।

আর পুলিশ বলছে, যে কোনো ধরনের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলার প্রস্তুতি তাদের রয়েছে।করোনায় স্থবির হয়ে এসেছে দেশের অর্থনীতির চাকা। শ্রমিকদের বেতন-ভাতা দিতে না পারায় এরই মধ্যে বন্ধ হয়ে পড়েছে দেশের অনেক শিল্প-কারখানা। নতুন করে এসব কারখানা চালু করতে অর্থের প্রয়োজনীয়তা তৈরি হয়েছে ব্যবসায়ীদের। ঠিক এ সুযোগটি কাজে লাগাতে সক্রিয় হয়ে উঠেছে একশ্রেণীর প্রতারক চক্র। তারা বিদেশী বিনিয়োগ এনে দেয়ার কথা বলে উল্টো ব্যবসায়ীদের অর্থ আত্মসাৎ করছে। চলমান সংকট দীর্ঘ হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে এ ধরনের আর্থিক অপরাধ বেড়ে যাওয়া শঙ্কা বিশেষজ্ঞদের।এক যুগেরও বেশি সময় ধরে ড্রেজিং ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে ফার্স্ট এসএস এন্টারপ্রাইজ (প্রা.) লিমিটেড।

নভেল করোনাভাইরাস সংক্রমণের মধ্যে পানি উন্নয়ন বোর্ডের বেশকিছু কাজ পেয়ে যায় প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু কাজের জন্য যে ড্রেজিং মেশিন দরকার, তা ওই প্রতিষ্ঠানের নেই। পরে প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. আবু সাদেক ২২ কোটি টাকা মূল্যের ড্রেজিং মেশিন কেনার জন্য বেশ কয়েকটি ব্যাংক ও আর্থিক প্রতিষ্ঠানের কাছে প্রস্তাব নিয়ে যান। কিন্তু চলমান সংকটের মধ্যে সাড়া মেলেনি তার প্রস্তাবে।ব্যবসায়ী আবু সাদেক জানান, এতে নতুন ড্রেজিং মেশিন কেনার কার্যক্রমে ছেদ পড়ে। এ অবস্থায় পূর্ব পরিচিত শেখর বড়ুয়া তাকে এক ব্যবসায়ী পরামর্শকের কাছে নিয়ে যান, যার নাম এমএম এহসান নিজামী ওরফে তানিম। তিনি নিজেকে ইএফআই (এসজি) লিমিটেড নামের সিঙ্গাপুরের একটি প্রতিষ্ঠানের কনসালট্যান্ট হিসেবে পরিচয় দেন। সব কাগজপত্র দেখে তানিম জানান, তার প্রতিষ্ঠান ড্রেজিং মেশিন কেনার জন্য ৮০ শতাংশ টাকা বিনিয়োগ করবে। তবে এর আগে ফার্স্ট এসএস এন্টারপ্রাইজ (প্রা.) লিমিটেডকে এলসি খোলার জন্য ২০ শতাংশ টাকা এবং ফাইল প্রসেসিংয়ের জন্য আরো কিছু টাকা দিতে হবে। সে অনুযায়ী ২ কোটি ২৩ লাখ টাকা প্রদান করা হয়।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও