কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

কীভাবে একশরও বেশি ইহুদির প্রাণ বাঁচান তিন মুসলিম কূটনীতিক

বিবিসি বাংলা (ইংল্যান্ড) প্রকাশিত: ২৮ মে ২০২০, ১৭:১৬

১৯৭৭ সালের ৯ই মার্চ সশস্ত্র একদল কৃষ্ণাঙ্গ আমেরিকান মুসলিম ওয়াশিংটনে একটি ইহুদি দাতব্য সংস্থার অফিসে এবং একটি মসজিদ সহ তিনটি ভবনে হামলা চালিয়ে বহু লোককে জিম্মি করে।

তাদের মূল টার্গেট ছিল বিনাই ব্রিথ নামে ইহুদি একটি দাতব্য সংস্থার ভবন। তারা সেখানে একশরও বেশি কর্মীকে প্রায় চারদিন ধরে জিম্মি করে রেখেছিল। বিনাই ব্রিথ ভবন যেটি ছিল আমেরিকায় ইহুদি অ্যাকিটভিজমের প্রধান কেন্দ্র।

তিনদিন ধরে কয়েকটি মুসলিম দেশের রাষ্ট্রদূতদের মধ্যস্থতায় সেই জিম্মি নাটকের অবসান হয়েছিল।

বিনাই ব্রিথ নামে ইহুদিদের একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের ভবনে সেসময় জিম্মি হয়েছিলেন প্রতিষ্ঠানের একজন কর্মকর্তা পল গ্রিন। বিবিসির সাইমন ওয়াটের কাছে রোমহর্ষক সেই জিম্মি নাটকের স্মৃতিচারণ করেছেন তিনি।

বিনাই ব্রিথের বয়স ছিল তখন ২৬। ফ্লুর কারণ কয়েকদিন ছুটিতে থাকার পর তিনি যেদিন কাজে যোগ দেন তার পরদিনই ঐ হামলার ঘটনা ঘটে। সবে তিনি সেদিন তার প্রথম মিটিং শেষ করেছেন। হঠাৎ একটি শব্দের দিকে তার কান গেল।

"হঠাৎ ঝম ঝম করে কাঁচ ভাঙার শব্দ পেলাম । তারপর দেখলাম এক ব্যক্তি তরতর করে উপরে উঠে আসছে। পরে শুনেছিলাম তার নাম আব্দুল লতিফ। হাতে দুটো পিস্তল। সে চিৎকার করে আমাকে বললো আমি যেন না নড়ি। সে আমাদের বললো এখনই যদি মেঝেতে না শুয়ে পড়ি, তাহলে আমাদের মরতে হবে।"

ঠিক সেসময় গুলির শব্দ শুনলেন পল গ্রিন। পরপরই আমরা তিনি দ্বিতীয় আরেকজনকে দেখলেন সেমি-অটোমেটিক একটি রাইফেল হাতে।

সুপরিকল্পিত এই হামলার শিকার হয়ে পড়লেন পল গ্রিন এবং তার একশরও বেশি সহকর্মী।

নব্য মুসলিম আফ্রিকান-আমেরিকান একদল লোক ঐ হামলা চালিয়েছিল।

তাদের নেতা ছিলেন হামাস আব্দুল খালিস নামে একজন যিনি একসময় নেশন অব ইসলাম গোষ্ঠীর একজন সদস্য ছিলেন। তার মানসিক ব্যাধিতে ভোগার ধাত ছিল। ওয়াশিংটনে তিনি সেদিন তিনটি পৃথক হামলার পরিকল্পনা করেছিলেন। উদ্দেশ্য ছিল তার ব্যক্তিগত এবং ধর্মীয় কিছু দাবির ব্যাপারে মনোযোগ আকর্ষণ।

হামলার শুরুর দিকেই এক হামলাকারী পল গ্রিনকে রাইফেলের বাট দিয়ে মুখে আঘাত করে।

"আমার থুতনির হাড় ভেঙ্গে গিয়েছিল। প্রচণ্ড রক্ত পড়ছিল। আমার জামা, প্যান্ট রক্তে ভিজে গিয়েছিল। সেসময় আরেকজন আমার দিকে পিস্তল তাক করে আমাকে অন্য সহকর্মীদের শরীরের ওপর শুয়ে পড়তে বললো।"

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

আরও