কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করায় মমতাকে বড় মূল্য দিতে হবে: অমিত শাহ

বাংলাদেশ প্রতিদিন প্রকাশিত: ১০ জুন ২০২০, ০৬:৪২

সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন (সিএএ)-এর বিরোধিতা করায় রাজনৈতিকভাবে বড় মূল্য দিতে হতে পারে ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যনার্জিকে। এই হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ভারতের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

তার অভিমত, বাংলার মানুষই আগামী নির্বাচনে মমতাকে রাজনৈতিক উদ্বাস্তু করে দেবে। মঙ্গলবার (৯ জুন) দিল্লি থেকে ভার্চুয়াল সভার মাধ্যমে পশ্চিমবঙ্গের বিজেপি নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখতে গিয়ে এই হুঁশিয়ারি দেন অমিত শাহ।

গত ডিসেম্বরে ভারতের সংসদে সংশোধিত নাগরিকত্ব আইন পাস হয়। কিন্তু কংগ্রেস, তৃণমূল, সিপিআইএমসহ বিরোধী দলগুলোর দাবি ধর্মের ভিত্তিতে করা এই নতুন নাগরিকত্ব আইন তারা কোনওভাবেই মানবে না। আইন প্রত্যাহারের দাবিও জানিয়েছে বিরোধীরা। তবে এই আইন নিয়ে সবচেয়ে বেশি সরব হয়েছে মমতা ব্যনার্জি। তিনি পরিস্কার জানিয়ে দেন, কোনওভাবেই তার রাজ্যে এ আইন কার্যকর করা হবে না।

সেই প্রসঙ্গ তুলেই এদিন অমিত শাহ বলেন, দেশভাগের পর কয়েক কোটি মানুষ, শরণার্থী প্রতিবেশি রাষ্ট্র থেকে এদেশে চলে এসেছেন। গত ৭০ বছর ধরে তারা ভারতেই রয়েছেন। তাদের কোন আইনি অধিকার নেই, তাদের কোন পরিচিতি নেই। নিজেদের দেশেই তারা বেনাগরিক হয়ে ছিলেন। অন্য দেশেও সমস্যার মধ্যে জীবনধারণ করতে হয়েছিল, এখানে এসেও তাদের নানা সমস্যা পোহাতে হচ্ছিল। কোন সরকারই তাদের কোন খোঁজ খবর নেয় নি কারণ তোষনের রাজনীতি করতে হবে। কিন্তু মোদি সরকার ক্ষমতায় এসেই ২০১৯ সালে তাদের নাগরিকত্ব দেওয়ার জন্য সিএএ আইন এনেছে।

এসময় মমতা ব্যনার্জিকে তোপ দেগে অমিত শাহ বলেন, আমি ওই দিনই মমতার চেহার দেখেছিলাম। রাগে তার মুখ লাল হয়ে গিয়েছিল। তিনি এতটাই ক্ষুব্ধ ছিলেন যে সৌজন্যতা বোধটুকু ভুলে গিয়েছিলেন। এত রাগ কখনও কোন ব্যক্তির মধ্যে দেখি নি। সংসদের ভিতর, রাস্তায়, র‌্যালি সবজায়গায় বিক্ষোভ করেছিলেন তিনি।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও