ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি। ছবি: সংগৃহীত

কোহলির সংবাদ সম্মেলন নিয়ে তুমুল নাটকীয়তা

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১০:৫৬
আপডেট: ২৯ জুলাই ২০১৯, ১০:৫৬

(প্রিয়.কম) সচরাচর বিদেশ সফরের আগে দলের অধিনায়ক আসবেন সংবাদ সম্মেলনে, আসন্ন সিরিজ নিয়ে দলের পরিকল্পনার কথা জানাবেন সাংবাদিকদের। নিজেদের ক্রিকেট ইতিহাসের শুরু থেকেই এমনটাই করে এসেছে ভারত। তবে উইন্ডিজ সফরে উড়ে যাওয়ার আগে মনে হচ্ছিল এর ব্যতয় ঘটবে। নিজেদের ঐতিহ্য নিজেরাই ভেঙে ফেলবে ভারত।

শুরুতে উইন্ডিজ সফরের আগের দিন অনুষ্ঠিতব্য সংবাদ সম্মেলন বাতিল করে দেয় বোর্ড অব কন্ট্রোল ফর ক্রিকেট ইন ইন্ডিয়া (বিসিসিআই)। পরে আবার বিতর্ক এড়ানোর জন্য সংবাদ সম্মেলন আয়োজনের কথা জানায় দেশটির ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি। ক্রিকেট সমর্থকদের ভাষ্য, এমন নাটকীয়তা এর আগে দেখা যায়নি। 

সোমবার ভারতীয় দলের সংবাদ সম্মেলন হওয়ার কথা ছিল। সে দিনই উইন্ডিজের বিরুদ্ধে দুটি টি-টোয়েন্টি খেলতে যুক্তরাষ্ট্রের ফ্লোরিডা যাচ্ছে ভারতীয় দল। বাকি একটি টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে ও টেস্ট সিরিজের খেলা হবে ওয়েস্ট ইন্ডিজেই। কিন্তু হুট করেই সংবাদ সম্মেলন হবে না বলে ইঙ্গিত দেয় বিসিসিআই।

কারণ হিসেবে ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলির একটি প্রোমোশনাল ইভেন্টে ব্যস্ত থাকার কথা জানানো হয়। তবে বিসিসিআই সূত্রে এমন ইঙ্গিত মেলার পরেই ভারতের সংবাদমাধ্যমে দাবানলের মতো ছড়িয়ে পড়ে যে, রোহিতের সঙ্গে সমস্যার জেরেই সাংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত থাকতে চান না কোহলি।

ঘটনা অন্যদিকে মোড় নিতে পারে উপলব্ধি করেই বিসিসিআই বিবৃতি দিয়ে জানিয়ে দেয় যে, সোমাবার রাতে ভারতীয় দল দেশ ছাড়ার আগে সন্ধ্যায় মুম্বাইয়ের একটি হোটেলে অধিনায়ক কোহলি প্রাক-সফর সাংবাদ সম্মেলনে মিলিত হবেন।

ভারতীয় গণমাধ্যমের বরাতে জানা যায়, বিতর্ক এড়াতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরের আগে কোনো ঝুঁকি নেয়নি ক্রিকেট বোর্ড। তাই রীতি মেনে সফরের আগে ভারত অধিনায়ককে সাংবাদিক সম্মেলনে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিসিসিআই। তবে সেই সংবাদ সম্মেলনে দলের হেড কোচের উপস্থিত থাকার কথা জানানো হয়নি বোর্ডের পক্ষ থেকে। 

প্রিয় খেলা/আশরাফ

আরো পড়ুন