কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

বেকার স্বামীকে কাজ দেয়ার কথা বলে প্রেমিককে নিয়ে খুন

ডেইলি বাংলাদেশ পঞ্চগড় প্রকাশিত: ০২ জুলাই ২০২০, ২১:৫৪

করোনায় বেকার হওয়া স্বামীকে কাজ দেয়ার কথা বলে প্রেমিককে নিয়ে স্ত্রী পরিকল্পিতভাবে খুন করেছেন বলে অভিযোগ উঠেছে। বৃহস্পতিবার ভোরে পঞ্চগড়ের তেঁতুলিয়ার বাংলাবান্ধা এলাকায় এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। হত্যার শিকার হওয়া ব্যক্তির নাম জহুর আলী। তার বাড়ি আটোয়ারী উপজেলার বলরামপুর ইউপির গাঠিয়াপাড়া এলাকায়। অভিযুক্তরা হলেন জহুর আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী জাহেদা বেগম ও তার প্রেমিক ইদ্রিস আলী।

জহুর আলীর দ্বিতীয় স্ত্রী জাহেদা বেগমের সঙ্গে আটোয়ারী উপজেলার সাতখামার এলাকার ইদ্রিস আলীর গোপনে প্রেম চলছিল। করোনা পরিস্থিতিতে বেকার হয়ে পড়েন জহুর আলী। বুধবার ইদ্রিস কৌশলে জাহেদা ও জহুর আলীকে পাথর ভাঙার কাজ দেয়ার কথা বলে বাংলাবান্ধায় নিয়ে যান। সেখানে হকিকুল ইসলামের একটি ঘর ভাড়া নেয় তারা। ওই ঘরে অন্য শ্রমিকেরাও ভাড়া থাকেন।

বৃহস্পতিবার ভোরে জহুর আলী তার স্ত্রী ও ইদ্রিসকে আপত্তিকর অবস্থায় দেখে ফেলেন। এ সময় কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে জহুর আলীর গলায় ছুরি চালিয়ে দিয়ে পালিয়ে যান ইদ্রিস ও জাহেদা। জহুর আলীর চিৎকারে প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি ভিডিও ধারণ করে। পরে স্থানীয়রা তাকে প্রথমে তেঁতুলিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখান থেকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

জহুর আলীর ছেলে নুরুজ্জামান জানান, তার মা মারা যাওয়ার পর জাহেদাকে বিয়ে করেন তার বাবা জহুর। ইদ্রিসের সঙ্গে জাহেদার তিন বছর ধরে সম্পর্ক। এর আগে একাধিকবার বিষয়টি নিয়ে সালিসও হয়েছে। কাজ দেয়ার কথা বলে ডেকে নিয়ে জাহেদা ও ইদ্রিস পরিকল্পিতভাবে তার বাবাকে গলা কেটে হত্যা করেছে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

আরও