কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

বিধিনিষেধের বিরুদ্ধে রিট তুলে নেবে গ্রামীণফোন

প্রথম আলো প্রকাশিত: ৩০ জুন ২০২০, ২৩:৪৬

দেশে গ্রাহকসংখ্যায় শীর্ষ মোবাইল অপারেটর গ্রামীণফোনের ওপর নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশনের (বিটিআরসি) জারি করা দুই বিধিনিষেধ কাল বুধবার থেকে কার্যকর হচ্ছে।তার আগের দিন আজ মঙ্গলবার রাতে গ্রামীণফোন এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, তারা দুটি বিধিনিষেধ কার্যকর করবে। পাশাপাশি বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে সমাধান করতে হাইকোর্টে করা রিট আবেদন তুলে নেবে, যা গত সোমবার করা হয়েছিল। 

বিটিআরসি গত ২১ জুন গ্রামীণফোনের দুটি বিধিনিষেধ জারি করে। যা হলো, গ্রামীণফোন আগাম অনুমোদন ছাড়া কোনো ধরনের নতুন সেবা, অফার বা প্যাকেজ দিতে পারবে না। এখনকার অফার অথবা প্যাকেজও আবার অনুমোদন করিয়ে নিতে হবে।এ ছাড়া নম্বর ঠিক রেখে অপারেটর বদলে গ্রামীণফোনের ক্ষেত্রে 'লকিং পিরিয়ড' হবে ৬০ দিন। অন্যদের ক্ষেত্রে যা ৯০ দিন। এর মানে হলো, গ্রামীণফোন সহজে ছাড়া যাবে।

এদিকে গত রোববার আরেকটি বিধিনিষেধ জারি করা হয়। সেটি হলো, কল আদান-প্রদানের আয়ে গ্রামীণফোনের ভাগ কমিয়ে দেওয়া। গ্রামীণফোন আগামী ১৬ জুলাই থেকে কল আদান-প্রদান বা টার্মিনেশন থেকে ক্ষেত্রে 'অরিজিনেটিং' অপারেটর হতে প্রতি মিনিটে ১০ পয়সার বদলে ৭ পয়সা করে পাবে। অন্যরা আগের মতো ১০ পয়সাই পাবে।

এটি গ্রামীণফোনের আয়ের ওপর প্রভাব ফেলতে পারে। সূত্র জানায়, বিষয়টি আলোচনার মাধ্যমে সমাধানের বিষয়ে বিটিআরসির সঙ্গে গ্রামীণফোন কর্মকর্তাদের কথা হয়েছে। এ অংশ হিসেবেই রিট আবেদন তুলে নেওয়ার সিদ্ধান্তের কথা আনুষ্ঠানিকভাবে বিবৃতি দিয়ে জানাল গ্রামীণফোন।

বিবৃতিতে গ্রামীণফোন বলেছে, তারা আরোপ করা বিধিনিষেধ নিয়ে একমত নয়। তারপরও বিধিনিষেধ বাস্তবায়ন করছে। তবে কোম্পানি আশা করে, নিয়ন্ত্রক সংস্থার সঙ্গে তাদের বোঝাপড়ায় যে ঘাটতি রয়েছে, তা গঠনমূলক ও অর্থবহ সংলাপের মাধ্যমে নিষ্পত্তি করা সম্ভব।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও