কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

বিজিএমইএ সভাপতির বক্তব্য প্রত্যাহারের দাবি ১১ সংগঠনের

প্রথম আলো প্রকাশিত: ০৬ জুন ২০২০, ২২:৪২

শ্রমিক ছাঁটাই নিয়ে তৈরি পোশাকশিল্প মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ সভাপতির বক্তব্য সাত দিনের মধ্যে প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছে ১১ শ্রমিক সংগঠনের জোট গার্মেন্টস শ্রমিক অধিকার আন্দোলন। অন্যথায় তারা আন্দোলনের হুমকি দিয়েছে। রাজধানীর তোপখানা রোডে নিজেদের অস্থায়ী কার্যালয়ে আজ শনিবার আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে জোটটির এমন ঘোষণার পর বিজিএমইএ আনুষ্ঠানিকভাবে দাবি করেছে, 'সংগঠনের সভাপতি শ্রমিক ছাঁটাইয়ের ঘোষণা দেননি।


সংগঠন হিসেবে এ ধরনের ঘোষনা দেওয়ার কোন সুযোগও নেই। বিজিএমইএ সভাপতি কর্মসংস্থান হ্রাস পাওয়া ও সম্ভাব্য শ্রমিক ছাঁটাই বিষয়ে তাঁর গভীর উদ্বেগ ও আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন।' গত বৃহস্পতিবার অনলাইন সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে বিজিএমইএর সভাপতি রুবানা হক বলেন, করোনাভাইরাসের কারণে ক্রয়াদেশ কমে যাওয়ায় মাত্র ৫৫ শতাংশ সক্ষমতায় কারখানা চালাতে হবে। সেটি হলে শ্রমিক ছাঁটাই ছাড়া আর কোনো উপায় থাকবে না।


এটি অনাকাঙ্খিত বাস্তবতা, কিন্তু করার কিছু নেই। বিজিএমইএর সভাপতির এই বক্তব্যের পর সমালোচনামুখর হয়ে উঠেছে বিভিন্ন শ্রমিক সংগঠন। এদিকে সংবাদ সম্মেলনে ১১ শ্রমিক সংগঠনের জোটের নেতারা করোনাকালে শ্রমিক ছাঁটাই বা কারখানা লে-অফ না করা, করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা ও মৃতদের একজীবনের সমপরিমান ক্ষতিপূরন প্রদান, শ্রমিকদের নিত্যপণ্য দেওয়ার জন্য রেশনিং ব্যবস্থা চালুর দাবি করেন। সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে জোটটির সমন্বয়ক মাহবুবুর রহমান ইসমাইল বলেন, সরকারি প্রণোদনা পাওয়ার পরও বিজিএমইএর সভাপতি বলেছেন, জুন থেকে শ্রমিক ছাঁটাই করা হবে।


এটি অত্যন্ত অমানবিক ও অযৌক্তিক। কোন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ করোনার মহামারী চলাকালে এভাবে শ্রমিকের পেটে লাথি দিতে পারে না। পৃথিবীর সব দেশে শ্রমিকদের সহযোগিতা করা হচ্ছে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও