কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

‘সবার আগে জীবন বাঁচান, পরে ধর্ম’

পূর্ব পশ্চিম প্রকাশিত: ০৩ এপ্রিল ২০২০, ১২:৩৬

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসে ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা দ্রুত গতিতে বাড়ছে। মৃত্যু হয়েছে ৫৩ জনের। পরিস্থিতি যাতে হাতের বাইরে চলে না যায় সে কারণে গত ২৫ মার্চ গোটা দেশে লকডাউন ঘোষণা করেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। এরই মধ্যে দিল্লির নিজামুদ্দিনে তাবলিগ জামাতের মারকাজ মোদি সরকারের চিন্তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। ১ মার্চ থেকে ১৫ মার্চ অনুষ্ঠিত দিল্লির নিজামুদ্দিনের ওই ধর্মীয় অনুষ্ঠানে অসংখ্য মানুষ উপস্থিত ছিলেন। একশোর বেশি মানুষ এসেছিলেন চীন, ইয়েমেন, বাংলাদেশ, শ্রীলঙ্কা, ইন্দোনেশিয়া, সৌদি আরব, আফগানিস্তান ও ইংল্যান্ড থেকে। এই অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীর মধ্যে ৩০০ জন ইতোমধ্যেই করোনায় আক্রান্ত বলে জানা যাচ্ছে। মৃত্যু হয়েছে ১০ জনের। সম্পর্কিত খবর ৫ এপ্রিল ভারতবাসীর কাছে ৯ মিনিট সময় চাইলেন নরেন্দ্র মোদিচ্যালেঞ্জের মুখে সৌদি, ২২২ বছর পর ফের হজ বাতিলের শঙ্কাকরোনা পরীক্ষা করায় ডাক্তারদের পাথর নিক্ষেপ, নারী চিকিৎসক আহত (ভিডিও) এবার ওই প্রসঙ্গে মুখ খুললেন অভিনেত্রী ও লোকসভার সংসদ সদস্য নুসরাত জাহান। এক জাতীয় সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেছেন, দেশে নানা ধর্মের মানুষের বাস। এই মুহূর্তে কেউ কোনো অনুষ্ঠানে অংশ নিচ্ছে না। মারকাজের ঘটনা আমাদের অনেকটা পিছিয়ে দিয়েছে।’ নুসরাত আরও বলেন, ‘আমাদের দেশ একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আমি হাত জোড় করে মানুষের কাছে অনুরোধ করছি, এখন রাজনীতি, ধর্ম ও জাত নিয়ে কোনো কথা না বলতে। গুজব না ছড়িয়ে এখন বাড়িতে থাকাই ভালো। কোয়ারেন্টিনে থাকুন। জীবন বাঁচান, ধর্ম পরে আসবে।’ শুধু তাই নয়, তৃণমূলের এই সাংসদ বলেন, ‘এই পরিস্থিতিতে হিন্দু-মুসলিম রাজনীতি না করে সরকারি নির্দেশ মেনে চলা উচিত। এখন এই সমস্যাটাকে (করোনাভাইরাস) গুরুত্ব দিন। কারণ রোগ কিন্তু ধর্মকে আক্রমণ করে না।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

আরও