কুইক লিঙ্ক : মুজিব বর্ষ | করোনা ম্যাপ | করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব

দুঃসময়ে কর্মীদের পাশে আরটিভি, ছুটির আগেই বেতন

আরটিভি প্রকাশিত: ২৬ মার্চ ২০২০, ২০:৩০

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যুও। করোনায় টালমাটাল বিশ্ব অর্থনীতি। বন্ধ হচ্ছে প্রতিষ্ঠান। চাকরি হারাচ্ছে হাজারো মানুষ। করোনা সংক্রমণ ছড়িয়েছে বাংলাদেশেও। অর্থনীতিতেও লেগেছে ধাক্কা।আজ ২৬ মার্চ থেকে দেশজুড়ে শুরু হয়েছে অঘোষিত লকডাউন। অর্থনৈতিক মন্দার এই সময়ে বিপদে পড়েছে দেশের সব ছোট বড় প্রতিষ্ঠানগুলো। গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানগুলোতেও এর ছোঁয়া লেগেছে। ধুকছে বেশির ভাগ প্রতিষ্ঠান।আরটিভি এই দুঃসময়েই কর্মীদের পাশে দাঁড়িয়েছে। সময়ের চেয়ে এগিয়ে এসে প্রকাশ করেছে দায়বদ্ধতা। মার্চ মাস শেষ হবার আগেই বেতন পেয়েছেন আরটিভির কর্মীরা। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন আরটিভির কর্মীরা। উপ-বার্তা প্রধান মামুনুর রহমান খান প্রকাশ করেছেন তার অনুভূতি।তিনি লিখেছেন, 'সব খারাপের মধ্যেও কিছু খবর আশা জাগায়। করোনা সংক্রমণ রোধে সতর্কতা হিসেবে আরটিভি আজ থেকে পর্যায়ক্রমে অর্ধেক জনবল দিয়ে সম্প্রচার শুরু করেছে। ঝুঁকি এড়াতে এর আগেই বায়োমেট্রিক বন্ধ রেখে ফেস রিকগনিশন এটেনডেন্স সিস্টেম চালু করা হয়েছে। আর বিকেলে আরও নিশ্চিন্ত হলো সদস্যরা। দেশজুড়ে সাধারণ ছুটি শুরুর আগেই নিশ্চিত হয়েছে সবার বেতন। চরম দুঃসময়ে কর্তৃপক্ষের এমন উদ্যোগ সবার দায়িত্ব বাড়িয়ে দিয়েছে। সব প্রতিষ্ঠান মানবিক হলে গণমাধ্যমের চেহারাটা হয়তো অন্যরকম হতো।'এ বিষয়ে জানতে চাইলে আরটিভির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা সৈয়দ আশিক রহমান বলেন, আমাদের প্রত্যেক কর্মীই আরটিভির প্রাণ। করোনা বিশ্বব্যাপী দুর্যোগ বয়ে এনেছে। বিপদের এই সময়ে আরটিভি কর্তৃপক্ষ তার কর্মীদের প্রতি দায়বদ্ধতা প্রকাশ করেছে মাত্র।তিনি বলেন, দেশের এই পরিস্থিতিতে হোম কোয়ারেন্টিন অবস্থায় সবার মধ্যে এক ধরনের মানসিক ট্রমার মতো কাজ করে। সার্বিক সুস্থতার পাশাপাশি আর্থিক অনিশ্চয়তাও তখন কাজ করে। আরটিভি কর্তৃপক্ষ ঠিক এই জায়গায় কর্মীদের নিশ্চয়তা দিতে ছুটির আগেই বেতন প্রদান করেছে। আমরা চাই আরটিভি পরিবারের সদস্যরা আর্থিক নিশ্চয়তার মধ্যে থেকে দেশের এই পরিস্থিতিতে যেন তারা সব ও সঠিক খবর জনগণের কাছে পৌঁছাতে পারে। এজন্য আমরা সবসময় বলছি যে, আপনারা ঘরে থাকুন, আমরা আপনাদের জন্য কাজ করছি। পরিস্থিতি ভালো হলে প্রথম খবরটি যেন আমরা সবাইকে দিতে পারি।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

প্রতিদিন ৩৫০০+ সংবাদ পড়ুন প্রিয়-তে

এই সম্পর্কিত

ট্রেন্ডিং

আরও