‘কুৎসিত’ মানুষের গ্রাম

বণিক বার্তা প্রকাশিত: ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, ১৯:০০

ইতালির পায়োব্বিকো। সুন্দর গোছানো মধ্যযুগীয় একটি শহর, যেটিকে গ্রাম বলাই ভালো। মধ্য ইতালির আপেনাইন পর্বতমালা ও আদ্রিয়াটিক সাগরের মধ্যবর্তী একটি  উপত্যকার পাথুরে ভূমিতে অবস্থিত শহরটি। চারপাশে সবুজ বনভূমিতে আচ্ছাদিত। কিন্তু ভৌগোলিক সৌন্দর্য নয়, পায়োব্বিবো বিখ্যাত হয়েছে এর ‘কুৎসিত’ অধিবাসীদের জন্য!এর কারণ অবশ্য এই শহরে অবস্থিত একটি ক্লাব। দুই হাজার অধিবাসীর এ শহরে ১৮৭৯ সালে প্রতিষ্ঠিত হয় দেই ব্রুত্তি বা দ্য আগলি ক্লাব (কুৎসিত মানুষের ক্লাব)। ক্লাবটির আদর্শবাণী হচ্ছে- ব্যক্তির মনই আসল, বাহ্যিক চেহারা নয়। প্রজন্মের পরিক্রমায় কল্পিত স্বর্গরাজ্যের এই ধারণাটিই বর্তমান বিশ্বের শক্তিশালী আন্দোলনে পরিণত হয়েছে। দেখতে খারাপ মানুষের স্বীকৃতি আদায়ে সংস্থাটি কয়েক যুগ ধরে লড়াই করে আসছে।  এই ক্লাব দেই ব্রুত্তির বর্তমান রূপ দ্য ওয়ার্ল্ড অ্যাসোসিয়েশন অব আগলি পিপল। এই মুহূর্তে ৩০ হাজারের বেশি সদস্য ও বিশ্বব্যাপী ২৫টি শাখা রয়েছে ক্লাবটির।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন