(প্রিয়.কম) রাখাইন রাজ্যে সহিংসতার শিকার হয়ে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের নিঃশর্তভাবে ফিরিয়ে নিতে মিয়ানমারের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়শন (সিপিএ)। একইসঙ্গে রোহিঙ্গারা যে মানবিক সংকটের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, তা সমাধানে আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়ের প্রতিও আহ্বান জানানো হয়।

৭ নভেম্বর মঙ্গলবার বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়শন (সিপিএ) সম্মেলনে এ সংক্রান্ত এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানো হয়। সিপিএ’র মহাসচিব আকবর খান রোহিঙ্গাদের জাতিগত নিধন বন্ধ ও তাদের নিঃশর্তভাবে ফিরিয়ে নেওয়ার আহ্বান জানিয়ে সাধারণ সভায় বিবৃতি তুলে ধরেন। পরে সর্বসম্মতিক্রমে তা গৃহীত হয়।

রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের ওপর যে নিধনযজ্ঞসহ মানবাধিকার লঙ্ঘন হচ্ছে, তার তীব্র নিন্দা জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, জাতিসংঘের চাটার্ড, বিশ্ব মানবাধিকার ঘোষণা, আইপিইউ ১৩৭তম সম্মেলনে এজেন্ডা সবগুলোকে সামনে রেখে এবং জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদ যে প্রস্তাবনা দিয়েছে, তার আলোকে রোহিঙ্গা সমস্যার দ্রুত সমাধান করা হোক।

প্রাণ বাঁচাতে বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা। ছবি: ফোকাস বাংলা

প্রাণ বাঁচাতে বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশে পালিয়ে এসেছে প্রায় ১০ লাখ রোহিঙ্গা। ছবি: ফোকাস বাংলা 

বিবৃতিতে সিপিএ সেক্রেটারি জেনারেলকে অনুরোধ জানানো হয়, তিনি যেন রোহিঙ্গাদের অবস্থাটি সিপিএভুক্ত সংসদ, জাতিসংঘের মহাসচিব, সংশ্লিষ্ট আঞ্চলিক ও আন্তর্জাতিক সংস্থাকে অবহিত করেন। সেসময় তাদের টেকসই ও চিরস্থায়ী প্রত্যাবর্তন, নিরাপত্তা, জীবিকা ও নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করার কথাও তুলে ধরা হয়।

প্রসঙ্গত, গত ১ নভেম্বর থেকে বাংলাদেশের আয়োজনে ঢাকায় কমনওয়েলথ পার্লামেন্টারি অ্যাসোসিয়েশনের ৬৩তম সম্মেলন (সিপিসি) শুরু হয়েছে। সম্মেলনে এ বছর ১৪৪টি দেশের জাতীয় এবং ৪৪টি দেশের আঞ্চলিক পার্লামেন্টের ৫৫০ জনের বেশি প্রতিনিধি যোগ দিয়েছেন। 

প্রিয় সংবাদ/শান্ত