টেকনাফে ‘বন্ধুকযুদ্ধে’ ইয়াবা কারবারি নিহত

মানবজমিন প্রকাশিত: ২০১৯-০৫-২৩ ১০:৫৭:০০

টেকনাফে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হানিফ নামে এক ব্যাক্তি নিহত হয়েছেন। পুলিশের দাবি, তিনি ইয়াবা কারবারি। এ সময় ৩ পুলিশ সদস্য আহত হয়েছেন। ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি, ইয়াবা উদ্ধার করেছে বলেও দাবি পুলিশের।  বুধবার রাত ১২ টার দিকে টেকনাফের হ্নীলা সোলার প্লান্টের নিকটে একদল মাদক কারবারির সঙ্গে পুলিশের ‘বন্দুকযুদ্ধে’র ঘটনা ঘটে। এ আগে ওইদিন সকালে পুলিশের একটি দল বিশেষ অভিযান পরিচালনা করে হানিফকে আটক করে। নিহত যুবক হ্নীলা ইউনিয়ন নাটমুরা পাড়া এলাকার মৃত কাসেম আলীর পুত্র মো. হানিফ (৩৮)। আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, কনেস্টবল আবদুর শুক্কুর, মং প্রো, হেলাল। বন্দুকযুদ্ধের সত্যতা নিশ্চিত করে টেকনাফের  (ওসি) প্রদীপ কুমার দাশ জানান, আটককৃত  ইয়াবা কারবারী হানিফের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী ২৩মে গভীর রাতে গোপন স্থানে লুকিয়ে রাখা ইয়াবা, অস্ত্র উদ্ধার করার জন্য অভিযানে যায়। এই সময় তার সহযোগীরা পুলিশ উপস্থিতি টের পেয়ে এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ করে। এতে পুলিশের ৩ সদস্য আহত হয়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশ সদস্যরাও পাল্টা গুলি চালায়। পরে ঘটনাস্থলে আটক মাদক কারবারী হানিফ গুলিবিদ্ধ হয়। পুলিশ সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে টেকনাফ হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করে।থানার তথ্য সুত্রে জানা যায়, বন্দুকযুদ্ধে নিহত হানিফ  হ্নীলা ইউনিয়ন ৫নং ওয়ার্ড এলাকার চিহ্নিত ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রনালয়ের তালিকাভুক্ত মাদক কারবারী। তার বিরুদ্ধে মাদক, অস্ত্র মামলাসহ বেশ কয়েকটি মামলা রয়েছে।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

সংবাদ প্রবাহ

আরও