হতাশা কাটছে না

মানবজমিন প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-২৫ ০০:০০:০০

গেল বছর আমদানিসহ ৫৬টি বাংলা ছবি দেশের বিভিন্ন  প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পায়। তবে গত বছরের তুলনায় চলতি বছর ছবি মুক্তির সংখ্যা অনেকটাই কমেছে। বাংলাদেশ চলচ্চিত্র প্রযোজক পরিবেশক সমিতির অফিস কর্মকর্তা সোমেন বাবুর তথ্যমতে, এখন পর্যন্ত আমদানি ও ঈদেরসহ মোট ৩৩টি ছবি বিভিন্ন সময় মুক্তি পেয়েছে। এরমধ্যে ‘পাসওয়ার্ড’ ছবিটি ভালো ব্যবসা করেছে। এ ছাড়া ‘নোলক’, ‘আবার বসন্ত’,  ‘ফাগুন হাওয়ায়’, ‘যদি একদিন’, ‘আলফা’, ‘আব্বাস’, ‘বেপরোয়া’, আমদানি ছবি ‘শেষ থেকে শুরু’ ও সবশেষ ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিগুলো মুক্তির পর বেশ আলোচনায় ছিল। চলতি বছর শেষ হতে বাকি আছে আরো চার মাস। এই সময়ের মধ্যে ১৫টি ছবিও মুক্তির জন্য প্রস্তুত নেই বলে বিভিন্ন প্রোডাকশন হাউজ সূত্রে জানা যায়। প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান শাপলা মিডিয়ার কর্ণধার সেলিম খান বলেন, আমাদের আমদানি করা ছবিগুলোর মধ্যে ‘কিডন্যাপ’ ছবিটি মোটামুটি চলেছে। তবে ‘শেষ থেকে শুরু’ ছবিটি বেশ ভালো চলেছে। আমরা শাকিব খান ও ফারিয়া অভিনীত বড় বাজেটের ছবি ‘শাহেনশাহ’ আগামী ৪ঠা অক্টোবর মুক্তি দেবো। এদিকে রাজধানীর বলাকা হলের ব্যবস্থাপক এস এম শাহীন বলেন, আমরা আমদানি করা ছবি ‘কিডন্যাপ’ চালিয়েছিলাম। বৃষ্টির কারণে দর্শকস্বল্পতা ছিল। মোটামুটি চলেছে ছবিটি। আর আমদানি ছবিগুলো বাংলাদেশের সংস্কৃতির সঙ্গে খুব একটা না মিল না থাকার কারণে দর্শক হয়তো গ্রহণ করছে না। তিনি আরো বলেন, দর্শকরা দেশীয় ভালো মানের সিনেমা বেশি দেখতে চান। আমরা ঈদে শাকিবের ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবিটি চালিয়েছি। এ ছবিটি মোটামুটি চলেছে। এখন ‘বেপরোয়া’ ছবিটি চালাচ্ছি। এ মাসে নতুন ছবি আর নেই। পুরানো ছবি এখন চালাতে হবে। আর আগামী সেপ্টেম্বর ও অক্টোবরের অপেক্ষায় আছি। নতুন ছবি সেসময় মুক্তি পেলে আবার চালাবো। আগামী  সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে চারটি ছবি মুক্তির তালিকায় আছে। প্রযোজক সমিতির ছবি মুক্তির নিবন্ধন খাতা থেকে জানা  গেছে, আগামী ৬ই সেপ্টেম্বর ‘আমার জন্মভূমি’ নামের একটি চলচ্চিত্র মুক্তির জন্য নিবন্ধন করা আছে, তবে তা এখনো চূড়ান্ত হয়নি। কিন্তু এরপর থেকে সেপ্টেম্বর মাসজুড়ে ‘মায়াবতী’, ‘অবতার’, ‘গার্মেন্টস শ্রমিক জিন্দাবাদ’ ও ‘পাগলামী’ ছবিগুলো মুক্তির জন্য নির্মাতারা প্রস্তুতি নিচ্ছেন। আগামী ১৩ই সেপ্টেম্বর ‘মায়াবতী’ ও ‘অবতার’ নামে দুটি ছবি মুক্তি পাবে। মাহিয়া মাহি ও জে এইচ রুশো অভিনীত ‘অবতার’ ছবিটি পরিচালনা করেছেন মাহমুদ হাসান শিকদার। অরুণ চৌধুরীর পরিচালনায় ইয়াশ রোহান ও নুসরাত ইমরোজ তিশা অভিনীত ‘মায়াবতী’ ছবিটিও একই তারিখে মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে। আর আগামী ২০শে সেপ্টেম্বর মুক্তি পাবে মারুফ ও লাক্স তারকা অরিন অভিনীত এবং মোস্তাফিজুর রহমান বাবু পরিচালিত ‘গার্মেন্টস শ্রমিক জিন্দাবাদ’ ছবিটি। কমল সরকার পরিচালিত ‘পাগলামী’ মুক্তি পাওয়ার কথা রয়েছে আগামী ২৭শে সেপ্টেম্বর। এতে অভিনয় করেছেন বাপ্পী চৌধুরী ও কলকাতার শ্রাবণী রায়। সেপ্টেম্বরের পর অক্টোবরে মুক্তি পাবে শামিম আহমেদ রনী পরিচালিত ‘শাহেনশাহ’ ছবিটি। এ ছবিতে প্রথমবার দর্শকরা শাকিব খান ও নুসরাত ফারিয়াকে একফ্রেমে দেখতে পাবেন। রাজধানীর মধুমিতা সিনেমা হলের কর্ণধার ইফতেখার উদ্দিন নওশাদ বলেন, ভালো কনটেন্ট না পাওয়ার কারণে হতাশা কাটছে না।  মাঝে বৃষ্টি, ডেঙ্গু ভয়াবহতাসহ নানা কারণে ঈদের ছবির দর্শক কম ছিল। ছবিগুলো তারপরও মোটামুটি চলেছে। তবে ‘মনের মতো মানুষ পাইলাম না’ ছবির গল্পটা ভালো ছিল। আরো ভালো যাওয়া উচিত ছিল এ ছবিটি। সামনে ভালো মানের ছবির সংখ্যাও কম। এভাবে চলতে থাকলে হতাশা বাড়বে। ভালো মানের ছবি কম নির্মাণ হচ্ছে। শুধু ঈদ না বছরজুড়েই ভালো সিনেমা প্রেক্ষাগৃহে মুক্তি পাক এটাই চাওয়া আমার।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

আরও