আজই মাঠে নামবেন ডমিঙ্গো-ল্যাঙ্গাভেল্ট

মানবজমিন প্রকাশিত: ২০১৯-০৮-২১ ০০:০০:০০

গতকাল বিকেলে বাংলাদেশের মাটিতে পা রেখেছেন টাইগারদের প্রধান কোচ রাসেল ক্রেগ ডমিঙ্গো। দক্ষিণ আফ্রিকান এই কোচ বিকাল ৫টার দিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছেন। তার আগেই সকাল ৯টায় পৌঁছেন আরেক  প্রোটিয়া কোচ শার্ল ল্যাঙ্গাভেল্ট। তিনি বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচের দায়িত্ব পালন করবেন। এই দু’জনই আজ আসবেন মিরপুর শেরে বাংলা ক্রিকেট মাঠে। এরই মধ্যে শুরু হয়ে গেছে কন্ডিশনিং ক্যাম্প। আজ তৃতীয় দিনে সেখানে শিষ্যদের সঙ্গে যোগ দেবেন নয়া দুই কোচ। তার আগে বিসিবি’র কাছ থেকে বুঝে নেবেন দায়িত্বও। সাবেক প্রধান কোচ স্টিভ রোডসের বিদায়ের পর শঙ্কা ছিল দ্রুত প্রধান কোচ নিয়োগ নিয়ে। তবে বিসিবি এবার হাইপ্রোফাইল কোচদের দারুণ সারা পায়। তাদের মধ্যে ডমিঙ্গো একটি দিকে ছিলেন বেশ এগিয়ে। বাংলাদেশে এসে তিনি সরাসরি দিয়ে যান সাক্ষাৎকার। জানান টাইগারদের নিয়ে তার পরিকল্পনার কথা। তার সঙ্গে আলোচনায় বিসিবিও দারুণ খুশি ছিল। শেষ পর্যন্ত ডমিঙ্গোকেই প্রধান কোচ হিসেবে ঘোষণা করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। বিসিবি সভাপতি তাকে নিয়োগ দেয়ার ব্যাখ্যায় বলেছিলেন, ‘শেষ পর্যন্ত তিনজন ছিল টপ লিস্টে। এরমধ্যে ক্রাইটেরিয়া দেখতে হয়েছে। প্রথমে যেটা দেখা হয়েছে কোচ হিসেবে কে কতটা সময় দিতে পারবেন। অনেকেই আমাদের হেড কোচ হতে যাচ্ছেন, কিন্তু এই মুহূর্তে আসতে চাচ্ছেন না। আরেকটা খুব গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হলো ফুলটাইম দেয়া। এসব বিবেচনা করে আমরা দেখেছি এখনি কার হাতে পূর্ণাঙ্গ সময় আছে। তারমধ্য থেকে চূড়ান্ত করেছি ডমিঙ্গোকে।’রাসেল ডমিঙ্গো বাংলাদেশ ক্রিকেটকে পূর্ণাঙ্গ সময় দিবেনই। আগানিস্তানের বিপক্ষে টেস্ট ও ত্রিদেশীয় সিরিজে কাজ শুরু করবেন বলেই বিসিবি তাকে নিয়োগ দিতে কালক্ষেপণ করেনি। আর প্রধান কোচও কথা রাখতেই গতকাল বাংলাদেশে চলে এসেছেন। যদিও তিনি বিমানবন্দরে নেমে সংবাদ মাধ্যমের সঙ্গে কোনো কথা বলেননি। ধারণা করা হচ্ছে আজ অনুষ্ঠানিকভাবে কথা বলবেন ডমিঙ্গো। অন্যদিকে তার আগেই নিয়োগ হয়েছে তারই স্বদেশি ও এক সময়ের সহকর্মী শার্ল ল্যাঙ্গাভেল্টের। তিনি কাজ করবেন বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ের উন্নতিতে। যদিও এই  দু’জনের সঙ্গে বিসিবি’র চুক্তি আগামী দুই বছরের জন্য। পারফরম্যান্সের ওপর ভিত্তি করে সেই মেয়াদ আরো বাড়তে পরে বলেই জানিয়েছেন বিসিবির সভাপতি। গতকাল বিমানবন্দর থেকে সরাসরি গুলশানের আমারি পাঁচ তারকা হোটেলে যান রাসেল ডমিঙ্গো। সেখানে আপাতত অবস্থান করবেন। তারপর তার তার জন্য স্থায়ী বাসা ঠিক হলে সেখানে গিয়ে উঠবেন। অন্যদিকে এই দুই কোচ এখনই পাচ্ছেন তাদের আরেক সহকর্মী স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টোরিকে। তবে কিছুদিন পর তিনি যোগ দেবেন বলে জানা গেছে। ডমিঙ্গো-ল্যাঙ্গাভেল্টের সঙ্গে কাজ শুরু করবেন আগে থেকেই টাইগারদের ব্যাটিং কোচ নিল ম্যাকেঞ্জি ও ফিল্ডিং কোচ রায়ান কুক। তবে ম্যাকেঞ্জির আসতে হয়তো আরো সপ্তাহখানেক সময় লাগবে। তিনি বর্তমানে ছুটিতে রয়েছেন। এই চার প্রোটিয়ার হাতেই এখন টাইগার ক্রিকেটের দিন বদলের নাটাই।

সম্পূর্ণ আর্টিকেলটি পড়ুন

আরও