লিটন কুমার দাস। ছবি: প্রিয়.কম

বিয়ের জন্য ছুটি চাইলেন লিটন

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১২ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৫
আপডেট: ১২ জুলাই ২০১৯, ১৬:২৫

(প্রিয়.কম) বেশ কিছুদিন ধরেই গুঞ্জন শোনা যাচ্ছিল, বিয়ের কারণে আসন্ন শ্রীলঙ্কা সিরিজে নাও দেখা যেতে পারে লিটন কুমার দাসকে। এবার সেটাই হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) কাছে ইতোমধ্যেই ছুটি চেয়েছেন ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান। ১১ জুলাই, বৃহস্পতিবার বোর্ডের কাছে ছুটির জন্য আবেদন করেন তিনি।

লিটন দাসের ছুটি চাওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন বিসিবির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন। তিনি জানান, বৃহস্পতিবার ছুটির আবেদন বোর্ডে জমা দিয়েছেন লিটন। তবে তাকে ছুটি দেওয়ার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগ। আজ (শুক্রবার) এ বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হওয়ার কথা রয়েছে।

বিশ্বকাপের আগে যেন বিয়ের ধুম লেগেছিল বাংলাদেশের ক্রিকেট অঙ্গনে। আবু হায়দার রনি থেকে শুরু করে একে একে বিয়ের পিঁড়িতে বসেন সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ ও মুস্তাফিজুর রহমান। তাদের পর মুমিনুল হকও পা রাখেন জীবনের দ্বিতীয় ইনিংসে।

ওই সময়ে বিয়ের বাজনা বেজে উঠে লিটন কুমার দাসেরও। তবে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা নয়, বিশ্বকাপের আগে আংটি বদল হয় জাতীয় দলের ডানহাতি এই টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানের। হিন্দু রীতি অনুসারে যেটাকে বলা হয় আশীর্বাদ, ইসলামি রীতিতে যাকে আমরা বলি বাগদান।

এবার বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন লিটন দাস। আগামী ২৮ জুলাই গাঁটছড়া বাঁধবেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটসম্যান। এজন্য আগামী ৫ আগস্ট পর্যন্ত ছুটির আবেদন করেছেন লিটন। এদিকে আগামী ২৬ জুলাই থেকে শুরু হওয়া বাংলাদেশ ও শ্রীলঙ্কার মধ্যকার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শেষ হবে ৩১ জুলাই। অর্থাৎ ছুটি পেলে লঙ্কানদের বিপক্ষে এই সিরিজটি খেলা হচ্ছে না লিটনের।

মা-বাবার পছন্দের মেয়েকেই বিয়ে করছেন লিটন। পাত্রী দেবশ্রী বিশ্বাস সঞ্চিতা শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী। এর আগে গেল ১৭ এপ্রিল জন্মস্থান দিনাজপুরে লিটনের আশীর্বাদ হয়। পাত্রী দেবশ্রী বিশ্বাসের বাড়িও দিনাজপুর জেলায়। কনে পক্ষের বাড়ি গিয়ে আংটি পরিয়ে আশীর্বাদের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেন লিটন ও তার পরিবারের সদস্যরা। তখনই জানা গিয়েছিল, বিশ্বকাপের পরই বিয়ের পিঁড়িতে বসবেন জাতীয় দলের ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান।

প্রিয় খেলা/রুহুল