খালেদ আহমেদ। ছবি: সংগৃহীত

টিভিতে বিশ্বকাপ দেখতে গিয়ে ইনজুরিতে বাংলাদেশি পেসার

মুশাহিদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ১৩ জুন ২০১৯, ১৬:০৮
আপডেট: ১৩ জুন ২০১৯, ১৬:০৮

(প্রিয়.কম) ইংল্যান্ডের মাটিতে চলমান বিশ্বকাপ নিয়েই এই মুহূর্তে বুঁদ হয়ে রয়েছে ক্রিকেট-বিশ্ব। বাংলাদেশি ভক্ত-সমর্থক ও ক্রিকেটপ্রেমীরাও এর ব্যতিক্রম নন। সবার নজর এখন ইংল্যান্ডে। বিশ্বকাপের উন্মাদনায় মাততে কেউ কেউ ইতোমধ্যে ইংল্যান্ড পাড়ি জমিয়েছেন। মাঠে উপস্থিত থেকে সমর্থন ও অনুপ্রেরণা যোগাচ্ছেন মাশরাফি-সাকিব-তামিমদের।

যারা ইংল্যান্ড যেতে পারেননি তারা টেলিভিশনের পর্দায় প্রিয় দলের খেলা উপভোগ করছেন। এই তালিকায় রয়েছেন দেশের অনেক ও সাবেক বর্তমান ক্রিকেটাররাও। কিন্তু টেলিভিশনের পর্দায় বিশ্বকাপ দেখতে গিয়েই চোটে পড়েছেন পেসার খালেদ আহমেদ, এমনটাই দাবি করেছেন সিলেটের এই তরুণ পেসার।

বাংলাদেশের হয়ে এখন পর্যন্ত দুটি টেস্ট খেলা ডানহাতি এই পেসার জানান, ঈদের ছুটিতে বাড়িতে গিয়ে টিভিতে বিশ্বকাপের খেলা দেখার সময় দ্রুত পা নাড়ানোর সময় চোটে পড়েন তিনি। চোটের কারণে অন্তত চার মাসের জন্য মাঠের বাইরে ছিটকে যেতে হয়েছে খালেদকে। এমনকি চোট থেকে সেরে উঠতে ২৬ বছর বয়সী এই পেসারকে ছুঁড়িকাচির নিচে পর্যন্ত যেতে হবে বলে জানিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) ফিজিও বায়েজেদুল ইসলাম।

খালেদের ইনজুরিকে বেশ গুরুতর উল্লেখ করে বিসিবির এই ফিজিও বলেন, ‘তার (খালেদ) এমআরআই করা হয়েছে। রিপোর্ট অনুযায়ী, তার হাঁটু ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। তার বাম হাঁটুতে অপারেশন করাতেই হবে। এ ছাড়া অন্য কোনো উপায় নেই। সার্জারি সম্পন্ন হওয়ার পর সুস্থ হতে কমপক্ষে চার মাস সময় লাগবে।’

চোট নিয়ে খালেদ বলেন, ‘আমি বাসায় বসে টিভিতে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ ম্যাচ দেখতেছিলাম। হঠাৎ পেশীতে টান অনুভব করি। পেশীকে স্বাভাবিক করার জন্য আমি খুব দ্রুত নিজের পা নাড়ানোর চেষ্টা করেছি। দুর্ভাগ্যজনকভাবে নিজেই নিজেকে ব্যথা দিয়ে বসি।’

প্রিয় খেলা/রুহুল

আরো পড়ুন