এইরিকা ক্রাহমার। ছবি: সংগৃহীত

মডেলিং করতে গিয়ে বিক্রি ও ধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন এই মার্কিন মডেল

প্রিয় ডেস্ক
ডেস্ক রিপোর্ট
প্রকাশিত: ১০ মে ২০১৯, ১৮:০৮
আপডেট: ১০ মে ২০১৯, ১৮:০৮

(প্রিয়.কম) সেক্স ট্রাফিকিং শব্দটা অনেকের পরিচিত আবার অনেকেই হয়তো জানেন না। যারা জানেন, কী সব ভয়ংঙ্কর সব ঘটনা ঘটে এই শব্দটার মধ্যে দিয়ে। তবে আবার অনেকে না জেনেই সেক্স ট্রাফিকিংয়ের বিপদে পা বাড়ান। তেমনভাবেই না জেনে বিপদে পড়েছিলেন মার্কিন মডেল এইরিকা ক্রাহমার।

সম্প্রতি এই মডেল তার সেই অভিজ্ঞতার কথা শেয়ার করেছেন। তিনি প্রথম মডেলিংয়ের কাজ করতে গিয়েছিলেন নিউ ইয়র্ক। একটি এজেন্সির মাধ্যমে তিনি শহরে পৌঁছে জানতে পারেন, মডেলিংয়ের কাজ খুঁজে নিতে হবে নিজেকেই।

এ বিষয়ে এইরিকা ক্রাহমার বলেন, ‘দুটো বেড রুমের একটা ফ্ল্যাটে আমাদের ২১ জনকে থাকতে হতো। কখনো কখনো সংখ্যাটা ৩০ হয়ে যেত। সে সময় ওই এজেন্সিরই এক ম্যানেজার আমাকে ড্রাগ খাইয়ে ধর্ষণ করে। একটা ক্লাবে ঘটেছিল সেই ভয়ঙ্কর ঘটনা। আমি পালানোর চেষ্টা করি। তখন রাস্তা থেকে অপহরণ করা হয়। পরের দিন ঘুম ভাঙতে দেখি একটা খাটে শক্ত করে বেঁধে রেখেছে আমাকে।’

সেক্স ট্রাফিকিংয়ের ফাঁদে পড়ে বিক্রি হয়ে গিয়েছিলেন এইরিকা, অভিজ্ঞতা শেয়ার করতে গিয়ে সে কথাও জানান তিনি। আর বলেন, ‘তিন দিন বন্দি অবস্থায় একাধিকবার ধর্ষণ করা হয়। মারা হয় বহুবার। তিন দিন পর সেই পরিস্থিতি থেকে কোনোমতে পালিয়ে কাছের একটা হোটেলে গিয়ে সাহায্য চেয়েছি। সেখানকার এক মডেল সাহায্য করেছিলেন।’

প্রিয় বিনোদন/আজাদ চৌধুরী

আরো পড়ুন