হাত মেলাচ্ছেন আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো ও সরফরাজ (ডান দিক থেকে দ্বিতীয়) । ছবি: সংগৃহীত

দেখা করে ক্ষমা চেয়েও পার পাচ্ছেন না সরফরাজ!

সৌরভ মাহমুদ
সহ-সম্পাদক
প্রকাশিত: ২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৪
আপডেট: ২৬ জানুয়ারি ২০১৯, ০৯:২৪

(প্রিয়.কম) দক্ষিণ আফ্রিকার সঙ্গে পাকিস্তানের দ্বিতীয় ওয়ানডে ম্যাচের ঘটনা। তখন ৩৭তম ওভারের খেলা চলছে। ব্যাটিংয়ে ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকার অলরাউন্ডার আন্দিলে ফেলুকওয়ায়ো, আর বল হাতে আক্রমণে ছিলেন পাকিস্তানের শাহীন আফ্রিদি। ওভারের তৃতীয় বলে সিঙ্গেল নেন ফেলুকওয়ায়ো।

ওই সময় স্টাম্প মাইকে শোনা যায় পাকিস্তানি উইকেটরক্ষক ও অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ বলছেন, ‘ওহে কাইল্লা (কালো লোক) তোর মা আজ কোথায় বসে আছে, কি দোয়া পড়তে বলে এসেছিস?’

একটি আন্তর্জাতিক দলের অধিনায়ক হিসেবে টিভি সেটের লাখো দর্শকের সামনে এমন বর্ণবাদী মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি ক্রিকেট ভক্তরা। যা নিয়ে সমালোচনার ঝড় ওঠে ক্রিকেট বিশ্বে। তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে শেষ পর্যন্ত ক্ষমা চাইতে বাধ্য হন সরফরাজ।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম টুইটারে পাকিস্তানি এই অধিনায়ক লিখেছিলেন, ‘উদ্দেশ্যপ্রণোদিত হয়ে কিংবা ইচ্ছে করে কাউকে এমন মন্তব্য করিনি। স্টাম্প মাইকে যা শোনা গিয়েছে এবং এজন্য যারা আঘাত পেয়েছেন ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন তাদের সবার কাছে আমি ক্ষমা চাচ্ছি। জেনেশুনে কোনো ব্যক্তিকে আঘাত করতে চাইনি। ভবিষ্যতে যেন এমনটি না হয় সেই ব্যাপারে যথেষ্ট সচেতন থাকব।’

এরপর যাকে উদ্দেশ্য করে মন্তব্য করেছিলেন সেই ফেলুকওয়ায়োর সঙ্গে সরাসরি দেখা করেও ক্ষমা চান সরফরাজ। কিন্তু তাতেও বোধহয় পার পাচ্ছেন না সরফরাজ। নিষিদ্ধ হতে পারেন তিনি। একইসঙ্গে বড় অঙ্কের জরিমানাও গুনতে হতে পারে তাকে। সবমিলিয়ে তার ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা ইন্টারন্যাশনাল ক্রিকেট কাউন্সিল (আইসিসি)।

দক্ষিণ আফ্রিকা দলের ম্যানেজার মোহাম্মদ মোসাজি জানিয়েছেন, ইতোমধ্যে সরফরাজের নিকৃষ্ট ওই আচরণের বিষয়ে আইসিসিকে অবহিত করা হয়েছে। সেই ম্যাচে দায়িত্বরত ম্যাচ রেফারি রঞ্জন মাদুগালেও সরফরাজের সঙ্গে কথা বলেছেন। এবার তাকে বড় শাস্তি দেওয়ার পরিকল্পনা আঁটছে বিশ্ব ক্রিকেটের এই অভিভাবক সংস্থা।

আইসিসির অ্যান্টি-রেসিজম কোড অনুযায়ী, বর্ণবাদী আচরণ বা মন্তব্য প্রমাণিত হলে অভিযুক্তকে ৪ থেকে ৮ সাসপেনশন পয়েন্ট দেওয়া হয়। দুই সাসপেনশন পয়েন্টে একটি টেস্ট এবং এক সাসপেনশন পয়েন্টে একটি ওয়ানডে ম্যাচে নিষিদ্ধ হয়। সে হিসেবে কমপক্ষে তিনটি ওয়ানডেতে নিষিদ্ধ হবেন সরফরাজ।

প্রিয় খেলা/রুহুল

আরো পড়ুন