(প্রিয়.কম) স্বাধীনতা কাপের দ্বিতীয় ম্যাচেই ঘুরে দাঁড়াল বিশ্ব একাদশ। হাশিম আমলা ও থিসারা পেরেরার ব্যাটিং ঝড়ে বুধবার তারা সাত উইকেটে নাটকীয়ভাবে হারিয়েছে পাকিস্তানকে। এর ফলে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজ এখন ১-১ ব্যবধানে সমতায়। শেষ ম্যাচে যারা জিতবে তাদের মুখেই ফুটে উঠবে সিরিজ জয়ের হাসি।

লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে এদিন টসে জিতে প্রথমে ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেয় পাকিস্তান। প্রথম টি-টোয়েন্টির মতো এদিনও দলের হাল ধরেন আহমেদ শেহজাদ (৪৩), বাবর আজম (৪৫) এবং শোয়েব মালিক (৩৯)। তাদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ের সৌজন্যেই নির্ধারিত ২০ ওভারে ছয় উইকেটের বিনিময়ে ১৭৪ রান সংগ্রহ করে স্বাগতিকরা।

বিশ্ব একাদশের হয়ে স্যামুয়েল বদ্রি এবং থিসারা পেরেরা দুটি করে উইকেট লাভ করেন। এছাড়া বেন কাটিং ও ইমরান তাহির পাকিস্তানের একটি করে উইকেট দখল করেন।

তবে পাকিস্তানের ছুঁড়ে দেওয়া ১৭৫ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে এদিন দুর্দান্ত শুরু করে বিশ্ব একাদশ। দলীয় ৪৭ রানে তামিম ইকবাল (২৩) সাজঘরে ফিরে গেলেও ব্যাট চালিয়ে যান হাশিম আমলা। এরপর অধিনায়ক ফাফ ডু প্লেসি এবং টিম পেইনেও আউট হয়ে গেলে থিসারা পেরেরাকে সঙ্গে নিয়ে লড়াই চালিয়ে যান আমলা। শেষ পর্যন্ত তাদের ব্যাটিং ঝড়ে এক বল বাকি থাকতেই তিন উইকেটে ১৭৫ রান সংগ্রহ করে বিশ্ব একাদশ। সেইসঙ্গে সাত উইকেটের রোমাঞ্চকর জয়ে সিরিজেও সমতায় ফেরে তারা। ৫৫ বলে পাঁচটি চার এবং দুটি ছক্কায় দলীয় সর্বোচ্চ ৭২ রান করেন আমলা। আর ১৯ বলে পাঁচ ছক্কায় ৪৭ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে অপরাজিত থেকে দলের জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন পেরেরা।

পাকিস্তানের ইমাদ ওয়াসিম, সোহেল খান এবং মোহাম্মদ নেওয়াজ প্রত্যেকেই একটি করে উইকেট লাভ করেন। তবে বোলিংয়ের পর ব্যাট হাতেও ঝলে উঠায় ম্যাচ সেরার পুরস্কার জেতেন বিশ্ব একাদশের লংকান ক্রিকেটার থিসারা পেরেরা।