(প্রিয়.কম): আগামী ২৭শে সেপ্টেম্বর ওয়ার্ল্ড ট্যুরিজম ডে। ১৯৮০ সাল থেকে জাতিসংঘের সকল সদস্য দেশে ওয়ার্ল্ড ট্যুরিজম অর্গানাইজেশনের তত্ত্বাবধানে দিনটি পালিত হয়ে আসছে। বাংলাদেশেও নানা আয়োজনের মধ্য দিয়ে দিনটি উদযাপন করা হবে। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদ ২০১৭ সালকে পর্যটন ক্ষেত্রের টেকসই উন্নয়নের জন্য আন্তর্জাতিক বছর হিসেবে ঘোষণা করেছে। ফলে অর্থনৈতিক, সামাজিক ও পরিবেশগত দিক সহ ১৭ টি স্থায়ী উন্নয়নের লক্ষ্য নিয়ে এবং আন্তর্জাতিক সম্প্রদায়গুলোর মধ্যে সম্পর্ক উন্নয়নের জন্য একটি অনন্য সুযোগ উপস্থাপন করছে পর্যটন ক্ষেত্র।

পর্যটন বাংলাদেশের সবচেয়ে দ্রুত উন্নয়নশীল শিল্পগুলির একটি। স্থানীয় ও বৈশ্বিক বাজারে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য বাংলাদেশ গত কয়েক বছরে পর্যটনে স্থিতি বিকাশের চেষ্টা করছে। বর্তমানে স্থানীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যটকদের ভ্রমণের জন্য দেশের বেশ কয়েকটি স্থানীয় ট্যুর অপারেটর, ট্রাভেল এজেন্সি এবং বুকিং প্ল্যাটফর্মগুলো অনলাইন এবং অফলাইনে নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে। ট্রিপজিপ বাংলাদেশের এমন একটি সংগঠন যার শুরু হয়েছিল একটি সামাজিক উদ্যোগ নিয়ে যাতে ভ্রমণকারীদের পুরো বাংলাদেশকে ঘুরে দেখার স্বপ্ন পূরণ সহজ হয়। এটি  ভ্রমণকারীদের জন্য একটি নিখুঁত প্ল্যাটফর্ম যেখানে যে কেউ তাদের ভ্রমণ অভিজ্ঞতা, রিভিউ কিংবা ছবি শেয়ার করে তরুণ পর্যটকদের জন্য একটি সত্যিকারের ভ্রমণের সুযোগ করে দিতে পারে। সংগঠনটি ২০১৬ সাল থেকে ইয়ুথ ডায়লগ, কিডস ক্যাম্প, সামার ক্যাম্প ও নারী পর্যটকদের জন্য নিয়মিত ক্যাম্পেইনের আয়োজন করে আসছে।  এছাড়া নারী, শিশু ও ব্যাকপ্যাকার্সদের জন্য ভ্রমণের বিশেষ ব্যবস্থাও করে থাকে।


বঙ্গবন্ধু সাফারি পার্ক ভ্রমণে ট্রিপজিপ চালু করেছে 'কিডস অ্যান্ড মমস ডে ট্রিপ'। ছবিঃ ট্রিপজিপ। 

বিশ্ব পর্যটন দিবস ২০১৭ উদযাপন উপলক্ষে বাংলাদেশ পর্যটন বোর্ডের সহযোগিতায় ট্রিপিজিপ এবার বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে একটি বিশেষ 'কিডস অ্যান্ড মমস ডে ট্রিপ' চালু করেছে। এই ট্রিপে ঢাকা থেকে সাফারি পার্ক পর্যন্ত এবং সাফারি পার্কের ভেতরে ঘুরে দেখার জন্য নিজস্ব পরিবহন সুবিধা দেয়া হবে। এছাড়া স্বাভাবিক এন্ট্রি ফি, ব্রেকফাস্ট ও মধ্যাহ্নভোজ সহ বিভিন্ন প্রজাতির স্থানীয় ও বিদেশী বন্যপ্রাণী সম্পর্কে শিশুদের শিক্ষাদানের জন্য একজন গাইড থাকবেন। ট্রিপের সবচেয়ে মজার বিষয় হলো, কোর সাফারি পার্কের যেকোনো রাইডে সব বয়সী মানুষ উঠতে পারবেন।


ভ্রমণের এই সুযোগ পেতে যোগাযোগ করুন এখনই। ছবিঃ ট্রিপজিপ। 

ভ্রমণের পাশাপাশি ট্রিপজিপ দেশের নারী ভ্রমণকারীদের নিয়ে তাদের সোশ্যাল মিডিয়া পেজে অনলাইন কনটেস্টের আয়োজন করতে যাচ্ছে। বাংলাদেশের ঐতিহ্যকে তুলে ধরার জন্য এই প্রতিযোগিতায় ঐতিহ্যবাহী স্থানগুলোর ছবি অন্তর্ভুক্ত করা হবে। প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারীদেরকে ছবি দেখে জায়গাগুলো চিহ্নিত করতে হবে এবং ঐ জায়গা সম্পর্কে যদি কোনো স্মৃতি থাকে তবে তা লিখে অনলাইনে শেয়ার করতে পারবেন। প্রতিযোগিতা শেষে বিজয়ীদেরকে পুরস্কার প্রদান করা হবে। ট্রিপজিপের এই ক্যাম্পেইনের উদ্দেশ্য শুধুমাত্র বাংলাদেশের ঐতিহ্যের প্রতি আলোকপাত করা নয় বরং পর্যটন শিল্পের উন্নয়নে বাংলাদেশের যে অপার সম্ভাবনা রয়েছে তা সারা বিশ্বের কাছে উন্মোচন করে দেয়া। আসন্ন ট্রিপের জন্য সাফারি পার্ক বেছে নেয়ার একটাই কারণ, দেশের বিরল প্রজাতির বন্যপ্রাণী সংরক্ষণের উপর জোর দেয়া।  

বাংলাদেশকে বিশ্বের পর্যটনের তালিকায় শীর্ষে রাখার জন্য ট্রিপজিপ এখন একটি সক্রিয় অংশীদার। পাশাপাশি নিরাপদ ও প্রযুক্তিনির্ভর ভ্রমণ যেন সবার হাতের কাছে থাকে সেই স্বপ্নও দেখে সংগঠনটি। 

সম্পাদনাঃ ড. জিনিয়া রহমান

প্রিয় ট্রাভেল সম্পর্কে আমাদের লেখা পড়তে ভিজিট করুন আমাদের ফেসবুক পেইজে। যে কোনো তথ্য জানতে মেইল করুন [email protected] এই ঠিকানায়। ভ্রমণ বিষয়ক আপনার যেকোনো লেখা পাঠাতে ক্লিক করুন এই লিংকে-https://www.priyo.com/post