(প্রিয়.কম) ঘূর্ণিঝড় হারভে আঘাত হানার পর ন্যাশনাল আদোবন সোসাইটির পক্ষ থেকে টেক্সাস সৈকতের ক্ষয়ক্ষতি নির্ণয় করতে সৈকতে যান ইকোলজিস্সট প্রীতি দেশাই। সৈকতে ঘোরাঘুরি এক পর্যায়ে হঠাৎ তার নজরে আসে অদ্ভুদ ও রহস্যময় একটি প্রাণি সৈকতে পড়ে আছে। প্রাণীটি মৃত এবং তার শরীরে পচনও ধরেছে। 

রহস্যময় প্রাণিটি কী তা বুঝতে না পেরে তিনি বেশ কয়েকটা ছবি তুলে আনেন এবং প্রাণিটি কি হতে হতে পারে তা জানতে বিভিন্ন জায়গা এবং অনলাইনে খোঁজ-খবর করতে থাকেন। একপর্যায়ে বিষয়টি বিবিসি’র নজরে আসে। বিবিসি’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, এটা সর্ম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত ছিল। এ ধরনের প্রাণী সচরাচর সৈকতে দেখা যায়। আমি ধারণা করেছিলাম এটি গভীর সমুদ্রের কোনো প্রাণি, ঝড়ের ধাক্কায় তীরে ভেসে এসেছে।

ঘটনার একপর্যায়ে প্রাণিটির কয়েকটি ছবি আপলোড করে টুইট করেন প্রীতি দেশাই। টুইটে লেখেন, ‘আচ্ছা, এই প্রাণিটি কী?’

প্রীতির এই টুইট জীববিজ্ঞানী কেনেথ তাঘির নজরে আসলে তিনি জানান, এটা হিংস্র দাঁতযুক্ত এক ধরনের ইল মাছ হতে পারে। এটিকে ‘গার্ডেন ইল’ বা ‘কংগার ইল’ বলা হয়। এই ইলগুলো সাধারণত প্রশান্ত মহাসাগরের ৩০ থেকে ৯০ ফুট গভীরে পাওয়া যায়।

ইলমাছটিকে সৈকতে রেখে এসেছিলেন প্রীতি। তার ইচ্ছা, প্রকৃতিই তার কাজ শেষ করুক।

প্রিয় সংবাদ/কামরুল