(প্রিয়.কম) স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেছেন, টেকনাফ ও উখিয়ার জনসংখ্যার চেয়ে তিন গুণ বেশি রোহিঙ্গা সেখানে এসে পড়েছেন। 

৯ নভেম্বর বৃহস্পতিবার দুপুরে শেরপুরের নালিতাবাড়ি উপজেলায় আড়াইআনি পুলিশ ফাঁড়ির উদ্বোধন অনুষ্ঠানে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন। 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিতে পাহাড় ও বনভূমি ধ্বংস হচ্ছে। ফলে সামাজিক অবস্থার বিপর্যয় ঘটছে। সব মিলিয়ে আমরা একটা চ্যালেঞ্জের মুখে পড়েছি। তবে দ্রুতই এই সমস্যার সমাধান হবে।’

রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠানোর প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রোহিঙ্গাদের মিয়ানমারে ফেরত পাঠাতে আগামী ৩০ নভেম্বরের মধ্যেই যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপ গঠিত হবে। দুই দেশের সমান সংখ্যক সদস্যের সমন্বয়ে গঠিত এই গ্রুপটি ঠিক করবে, কীভাবে রোহিঙ্গারা দেশে ফিরে যাবে।

পরে মন্ত্রী নালিতাবাড়ি থানার নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন এবং বিজিবি, আনসার ও ভিডিপি সদস্যদের মধ্যে সৌরবাতি বিতরণ করেন।

অনুষ্ঠানে আরও উপস্থিত ছিলেন কৃষিমন্ত্রী মতিয়া চৌধুরী, শেরপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য ফজলুল হক, ময়মনসিংহ রেঞ্জ পুলিশের উপ-মহাপরিদর্শক নিবাস চন্দ্র মাঝি, জেলা প্রশাসক ড. মল্লিক আনোয়ার হোসেন ও পুলিশের অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক রফিকুল হাসান গনি। 

প্রিয় সংবাদ/শান্ত