(প্রিয়.কম) কোরবানির ঈদের আগে যখন মানুষ ঢাকা ছাড়তে শুরু করে তখনই পাইকারি বাজারে সব ধরনের চালের দাম বেড়েছে। তবে ঈদের আগে খুচরা বাজারে এই দাম বৃদ্ধির প্রভাব না পড়লেও এখন পড়ছে।  ঈদের আগে ও পরের ব্যবধানে চালের দাম বেড়েছে কেজিতে ৩ থেকে ৬ টাকা। চালের দামে এই অস্থিরতা সহসা কাটছে না বলে জানিয়েছেন ব্যবসায়ীরা। 

সংশ্লিষ্টরা বলছেন, চালের সংকট মোকাবিলায় ঈদের আগে সরকার দুই দফায় আমদানির শুল্ক কমিয়ে ২৮ থেকে ২ শতাংশে নিয়ে এসেছে। এর প্রভাব চালের বাজারে পড়ার কথা। কিন্তু ইতিবাচক কোনো প্রভাব দেশের চালের বাজারে পরিলক্ষিত হচ্ছে না। 

রাজধানীর বাজারে সরু চালের দাম বছরের এ সময় ৫০ টাকার নিচে থাকার কথা থাকলেও এখন এই চালের দাম কেজিপ্রতি ৬০ টাকার উপরে। এছাড়া মাঝারি ও মোটা চালের দামও বেড়েছে কেজিতে ৩ থেকে ৪ টাকা।

খুচরা বাজারে মাঝারি মানের চালের মধ্যে বিআর-২৮ প্রতি কেজি ৫২ থেকে ৫৪ টাকা এবং মোটা চাল মানভেদে ৪৬ থেকে ৪৮ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

গত বছর এমন সময় মাঝারি চালের দামের থেকে এবার কেজিতে ১০ টাকা ও মোটা চালের দাম ১৩ টাকা বেশি।

দফায় দফায় চালের মূল্যবৃদ্ধির কারণে বিপাকে পড়েছে মানুষ। সীমিত আয়ের একটি পরিবারে ৫০ কেজির এক বস্তা চাল কিনতে এখন ৫০০ থেকে ৬৫০ টাকা বেশি খরচ হচ্ছে। চালের বিকল্প আটার দামও চলতি সপ্তাহে কেজিতে দুই টাকা বেড়েছে।

প্রিয় বিজনেস/আশরাফ