(প্রিয়.কম) ভালোবাসার সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার ব্যাপারটি যে কারোর জন্যেই কষ্টকর একটি অভিজ্ঞতা, যেটার মুখোমুখি হতে ভয় পান সকলেই। তবে বাস্তবতা ভিন্ন হওয়ায় কম কি বেশী, প্রায় সকলকেই জীবনের কোন এক সময়ে সম্পর্ক ভেঙে যাবার মতো কষ্টদায়ক অভিজ্ঞতার মধ্য দিয়ে যেতে হয়েছে। ভালোবাসার মানুষের সাথে সম্পর্ক ছিন্ন হয়ে যাবার অনেকগুলো দিন পর্যন্ত তার প্রতি ভালোবাসা ও টান রয়ে যায় একই রকম। অনেকেই সম্পর্ক ভেঙে যাবার পরে পুনরায় সম্পর্কে ফিরে আসতে চান। পুনরায় সম্পর্কটিকে প্রাণ দিতে চান। ‘ভালোবাসার মানুষ’টি একবার যখন ‘প্রাক্তন ভালোবাসার মানুষ’ হয়ে যান, এরপরে কি তার সাথে পুনরায় সম্পর্ক স্থাপন করা উচিৎ? নতুন করে তার সাথে ভালোবাসার সম্পর্কটি কে তৈরি করা কি ভুল সিদ্ধান্ত হবে?

জীবনের ভিন্ন মোড়ে, ভিন্ন অভিজ্ঞতার ঝুলিতে এমন অভিজ্ঞতাও নিশ্চয় হয়েছে অনেকের। সম্পর্ক নষ্ট হয়ে যাবার পরও পুনরায় ভালোবাসার সম্পর্কে ফিরে আসতে চাইছেন প্রাক্তন ভালোবাসার মানুষটি। সেক্ষেত্রে তার সাথে আবারও ভালোবাসার সম্পর্কটি তৈরি করা কী উচিৎ হবে? জেনে রাখা প্রয়োজন, প্রাক্তনের সাথে পুনরায় ভালোবাসার সম্পর্কে ফিরে যাওয়া কখনোই উচিৎ নয়। যদি উচিৎ না হয় তবে কেন? সেটাও জেনে নিন কারণসহ বিস্তারিতভাবে।

ইতিমধ্যেই আপনি এগিয়ে গিয়েছেন

সম্পর্ক ভেঙে যাবার পরের যন্ত্রণাময় সময়গুলো ইতিমধ্যেই আপনি পার করে ফেলেছেন একবার। পরিবার ও বন্ধুদের সহায়তায় প্রাক্তনের কথা হয়তো ভুলে গিয়েছেন আপনি। কিন্তু এতকিছুর পরে এবং এতো মানসিক যন্ত্রণা সহ্য করার পর যখন আপনি নিজেকে সামলে নিয়েছেন, তখন প্রাক্তন দুঃখিত বোধ করে পুনরায় ফিরে এলেও তার সাথে সম্পর্কে জড়ানো হবে ভুল সিদ্ধান্ত। নিজেকে যখন আপনি নিজের মতো করে তৈরি করে নিতে পেরেছেন, তখন শুধুমাত্র নিজেকেই সময় দেওয়া উচিৎ।

পুরনো সম্পর্কের সময়কালীন ‘আপনি’ এখন আরো ‘উন্নত আপনি’

নিজের পুরনো সম্পর্ক ভেঙে যাবার সময়ে আপনি যেমন ছিলেন, এরপরের কষ্টকর সময় পার করার সময়ে আপনার মাঝে অনেক পরিবর্তন চলে আসবে, যেটা স্বাভাবিক। আপনি এই সময়টুকুর মাঝে বাস্তবতাকে চিনতে শিখবেন, মানুষকে বুঝতে শিখবেন, নিজেকে আরো বেশী কঠোর করে গড়ে তুলতে শিখবেন। মোট কথা, আগেরকার সময়ের ‘আপনি’ বর্তমানে আরও উন্নত ‘আপনি’ হিসেবে গড়ে উঠবেন। তখন আপনার চোখের সামনে আপনার অতীত সময়ের ভুলগুলো খুব পরিষ্কার হয়ে ধরা দেবে। যার ফলে, আপনি নিজ থেকে কখনোই প্রাক্তনের সাথে সম্পর্কে ফিরে যেতে চাইবেন না।

 

সম্পর্কে জড়ানো

কোন একটা কারণের জন্যেই সম্পর্ক ভেঙে গিয়েছিল

বর্তমানে প্রাক্তন হয়তো অনেক বেশী আবেগী কথা লিখে ক্রমাগত বার্তা পাঠাচ্ছেন, ফোনকল দিচ্ছেন। আপনাকে তিনি কতোটা ভালোবাসেন তা বলছেন, আপনাকে কতোটা সুখী রাখবেন সেটাও জানাচ্ছেন। কিন্তু সকল কিছুর পরেও শুধুমাত্র একটা কথা মাথায় রাখতে হবে। সম্পর্ক ভেন্নগে যাওয়ার পেছনে কিংবা সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবার পেছনে অবশ্যই গুরুত্বর কোন কারণ ছিল। যার ফলে ভালোবাসার সম্পর্কটিকে ধরে রাখা আর সম্ভব হয়নি। সেই কারণটি মনে করুন। ভাবুন তো একই কারণটি মেনে নিয়ে সম্পর্ককে পুনরায় এগিয়ে নিতে পারবেন কি?

সময় অনেক বদলে গেছে

ভালোবাসার সম্পর্ক চলাকালীন সময়ে সবকিছুই অনেক বেশী রোমান্টিক থাকে। কিন্তু সেই সম্পর্কটা একবার ভেঙে গেলেই ফাটল ধরে যায় সবকিছুর মাঝে। আর একবার সম্পর্কের মাঝে এই ফাটল দেখা দিলে, সেটা আর কখনোই আগের মতো ঠিক হয়ে যায় না। বিশেষ করে, সম্পর্ক ভেঙে যাবার পর, একে অপরের প্রতি ভালোবাসাটাও আগের মতো থাকে না। আর তাই পুনরায় প্রাক্তনের সাথে সম্পর্কের মাঝে ফিরে যেতে চাইলেও ভালোবাসাটা কখনোই আগের মতো থাকবে না।

একা থাকার প্রতি অগ্রাধিকার দেওয়া

সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর একজন মানুষ স্বাভাবিকভাবেই অনেক বেশি মানসিক বিপর্যয়ের মাঝে দিয়ে সময় পার করে। এই বাজে সময়টা কাটিয়ে ফেলার পর যখন নিজেকে অনেকটাই সামলে নেওয়া সম্ভব হয় তখন একা থাকার প্রতি আগ্রহ সৃষ্টি হয়। অর্থাৎ, পুনরায় কোন ভালোবাসার সম্পর্কের মাঝে জড়ানোর ইচ্ছা কাজ করে না একেবারেই। এমন সময়ে প্রাক্তন ভালোবাসার মানুষ যতোই ফিরে আসার জন্য আকুতি জানাক না কেন, একা থাকার সিদ্ধান্তে অটল থাকাই হবে বুদ্ধিমানের কাজ।

প্রাক্তনরা সত্যিকার অর্থে আপনাকে ভালোবাসেন না

সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবার বেশ কিছুদিন পর প্রাক্তন যদি পুনরায় সম্পর্কে ফিরে আসতে চান, তবে একটি কথা মাথায় রাখতে হবে- তিনি আপনাকে ভালোবেসে সম্পর্কে ফিরে আসতে চাইছেন না। সম্পর্ক একটা অভ্যাসের মতো ব্যাপার। নিয়মিত একজন মানুষের সাথে যোগাযোগ করা, দেখা করার মাধ্যমে একটা অভ্যস্ততা গড়ে ওঠে নিজের মধ্যে। সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার পর প্রতিদিনের অভ্যাসে বাধা চলে আসে বলে বিরক্তি কাজ করে। সময় কাটতে চায় না মোটেও। বেশীরভাগ ক্ষেত্রেই শুধুমাত্র এই কারণেই প্রাক্তনরা পুনরায় পুরোন সম্পর্কের মাঝে ফিরে আসতে চান।

সূত্র: Boldsky

প্রিয় লাইফ/ রুমানা বৈশাখী