(প্রিয়.কম) মিয়ানমারের সরকার ও সেনাবাহিনীর দমন অভিযান ও নির্যাতনের মুখে পালিয়ে আসা মুসলিম রোহিঙ্গাদের মানবিক বিপর্যয়ের সুযোগ নিয়ে কেউ যাতে তাদের জঙ্গিবাদের দিকে টেনে নিয়ে যেতে না পারে, সে ব্যাপারে নজরদারি রাখছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

৯ সেপ্টেম্বার শনিবার সকালে ডিএমপির মিডিয়া সেন্টারে এক সংবাদ সম্মেলনে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) কাউন্টার টেরোরিজম ইউনিটের প্রধান ও অতিরিক্ত কমিশনার মনিরুল ইসলাম এ কথা জানান।

মনিরুল ইসলাম বলেন, ‘যারা শরণার্থী হিসেবে বাংলাদেশে প্রবেশ করছে, তাদের সঙ্গে বাংলাদেশ সরকারের পক্ষ থেকে মানবিক আচরণ করা হচ্ছে। তবে সকলেই আমরা সতর্ক রয়েছি, মিয়ানমারে যে মানবিক বিপর্যয় চলছে তার সুযোগ নিয়ে কোনো মহল যাতে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করতে না পারে।’

তিনি বলেন, ‘ঝিমিয়ে পড়া জঙ্গিবাদ, এখানে প্রভাব তৈরি করে যাতে তারা কোনো রিক্রুটমেন্টের কাজ না করতে পারে, সে বিষয়ে যথাযথ নজরদারি ও সতর্ক অবস্থানে রয়েছি।’

এ সময় মনিরুল ইসলাম আরও জানান, গতকাল শুক্রবার রাজধানীর নিকুঞ্জ এলাকা থেকে নাঈম আহমেদ ও আনোয়ার হোসেন নামে দুই জঙ্গিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আটক দুজনই নব্য জামা’আতুল মুজাহিদীন বাংলাদেশের (জেএমবি) সদস্য। তাদের সঙ্গে নব্য জেএমবির সরোয়ার জাহান মানিক, রিপন, নোমান, আল বানী ডনসহ অন্যদের যোগাযোগ ছিল বলেও দাবি করেন মনিরুল ইসলাম।

প্রিয় সংবাদ/শান্ত