(প্রিয়.কম) কক্সবাজার থেকে রোহিঙ্গাদের ত্রাণ বিতরণ করে ফেরার পথে ফেনীর মহীপালে বিএনপি নেত্রী খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের কাছে দুটি বাসে পেট্রলবোমা হামলা চালিয়েছে দুর্বৃত্তরা। এতে বাস দুটিতে আগুন ধরে যায়। তবে বাসে কেউ না থাকায় কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

৩১ অক্টোবর মঙ্গলবার বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ফেনী সার্কিট হাউজের কাছে মহীপাল ফিলিং স্টেশনের সামনে এ ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, চট্টগ্রাম থেকে ঢাকার উদ্দেশে রওনা হওয়া বেগম খালেদা জিয়ার গাড়িবহর বিকেল সাড়ে চারটার দিকে ফেনীর মহীপাল অতিক্রম করছিল। সেসময় দুটি বাসে পেট্রলবোমা ছুড়ে মারে দুর্বৃত্তরা। এতে বাস দুটিতে আগুন ধরে যায়। ওই বাস দুটিতে কেউ ছিল না। তবে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর নিরাপদে ফেনী অতিক্রম করে।

ঘটনার পরপরই ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা গিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কোনো হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি।

 

গাড়িবহরকে শুভেচ্ছা জানাতে মহাসড়কে আগে থেকেই যুক্ত থাকা ফেনী জেলা বিএনপি ও এর অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা এই ঘটনাকে ক্ষমতাসীনদের হামলা মনে করে পরিস্থিতি মোকাবেলার চেষ্টা করে। ওই সময় তারা দুর্বৃত্তদের ধাওয়া করে এবং তাৎক্ষণিকভাবে এর প্রতিবাদ জানান ও বিক্ষোভ করেন।

 

তারা জানায়, খালেদা জিয়ার গাড়িবহরের ৩০-৩৫টি গাড়ি ফেনী অতিক্রম করছিল। বিকাল সাড়ে চারটার দিকে গাড়িগুলো মহীপাল ফিলিং স্টেশন অতিক্রম করার পরপরই কাছে দাঁড়িয়ে থাকা দুটি বাসে পেট্রলবোমা ছোঁড়া হয়। সঙ্গে সঙ্গে বাদ দুটিতে আগুন ধরে যায়। 

জ্বলছে বাস

পেট্রলবোমায় জ্বলছে গাড়ি। ছবি: ফোকাস বাংলা

খালেদা জিয়াকে শুভেচ্ছা জানাতে ফেনীর ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কের দুইপাশে অবস্থান নেন জেলা বিএনপি ও অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা। বাসে আগুন দেওয়ার পরে তারা বিক্ষোভ করেন এবং জড়িতের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান।

জেলা বিএনপির সভাপতি আবু তাহের দাবি করেন, এ ঘটনার জন্য আওয়ামী লীগ দায়ী। পরিকল্পিতভাবে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানান তিনি।

সেসময় আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদেরকেও সতর্ক অবস্থান নিতে দেখা গেছে। এ ঘটনায় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বাসের চালকসহ চারজনকে আটক করেছে পুলিশ।

গাড়িবহরের পেছনে পেট্রলবোমা হামলার ঘটনায় নিন্দা জানিয়ে বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর দোষীদের শাস্তি দাবি করেছেন।

এদিকে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর কুমিল্লায় পৌঁছেছে।

উল্লেখ্য, গত শনিবার ঢাকা থেকে কক্সবাজার যাওয়ার পথে ফেনীর প্রবেশমুখে খালেদা জিয়ার গাড়িবহর হামলার শিকার হয়। এতে বহরের পেছনের দিকে থাকা গণমাধ্যমকর্মীদের বেশ কয়েকটি গাড়ি ক্ষতিগ্রস্ত হয়, আহত হন বেশ কয়েকজন।

প্রিয় সংবাদ/শান্ত