(প্রিয়.কম) বাংলাদেশের বান্দরবান জেলার নাইক্ষ্যংছড়ির সীমান্তের আশারতলী সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণে আরও এক রোহিঙ্গার মৃত্যু হয়েছে। ১২ সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার সকালে এ তথ্য জানিয়েছে নাইক্ষংছড়ি পুলিশ এবং বিজিবি সদস্যরা।

জানা গেছে, বাংলাদেশ-মিয়ানমার সীমান্তের ৪৬নং পিলারের কাছে ১১ সেপ্টেম্বর সোমবার রাতে স্থলমাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় মোক্তার আহমদ (৪০) নামে এক রোহিঙ্গার মৃত্যু হয়েছে। তিনি রাখাইন রাজ্যের ফকিরাবাজার এলাকার আবদুস সালামের ছেলে।

এর আগে গত ৪ সেপ্টেম্বর সোমবার দুপুর ২টা ৪০ মিনিটের দিকে কক্সবাজারের উখিয়া উপজেলার ঘুমধুমের তুমব্রু সীমান্ত দিয়ে অনুপ্রবেশকালে মিয়ানমার সেনাবাহিনীর পুতে রাখা স্থলমাইন বিস্ফোরণে দুই পা উড়ে যায় এক রোহিঙ্গা নারীর

৯ সেপ্টেম্বর শনিবার রাতে  নাইক্ষ্যংছড়ি উপজেলার মিয়ানমার সীমান্ত সংলগ্ন রেজু আমতলি সীমান্তে স্থলমাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় তিন রোহিঙ্গা নিহত ও একজন আহত হন।

এ ছাড়া ১০ সেপ্টেম্বর রোববার ভোরে তুমব্রু সীমান্ত দিয়ে গরু আনতে গিয়ে স্থলমাইন বিস্ফোরণের ঘটনায় ঘুমধুমের বাইশফাঁড়ি এলাকার বাসিন্দা আবুল খায়েরের ছেলে মো. হাসান (৩২) একটি পা উড়ে যায় ও চোখে আঘাত লাগে।

এদিকে বাংলাদেশ সীমান্তের কাছে মিয়ানমারের ভেতর সে দেশের সরকার ভূমি মাইন পেতেছে বলে দাবি করেছে যুক্তরাজ্যভিত্তিক মানবাধিকার অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন