(প্রিয়.কম) এর আগে অপারেশন থিয়েটারে গিটার বাজানো, গান গাওয়া বা মাউথ অরগ্যান বাজানোর মতো ঘটনার কথা অনেকেই শুনেছে। কিন্তু ব্রেইন টিউমার অপারেশনের সময় স্যাক্সোফোন বাজানোর কথা কি শুনেছেন? এবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ব্রিইন টিউমার অপারেশনের সময় এক ব্যাক্তি বাজালেন স্যাক্সোফোন। ২৫ বছর বয়সী ড্যান ফোবিও নামের ওই ব্যাক্তি একজন সঙ্গীত শিক্ষক।

দুই বছর আগেও ড্যান ছিলেন পুরোপুরি সুস্থ। তরতাজা যুবক। নিউ ইয়র্কের স্কুলে মিউজ়িক শেখাতেন। হঠাৎ একদিন কানের সমস্যা শুরু হয়। ৩০ সেকেন্ডের জন্য সঠিক শব্দ শুনতে পেতেন না। ধীরে ধীরে তা বাড়তে থাকে। এই সমস্যা তার সংগীত জীবনে প্রভাব ফেলে। শুধু মিউজ়িক নয়, অন্য ক্ষেত্রে শোনার ব্যাপারেও একই সমস্যা। 

পরে চিকিৎসকের কাছে গেলে জানতে পারেন ড্যানের মাথায় ডিমের সাইজের একটি টিউমার হয়েছে। এ ঘটনার পর নিউ ইয়র্কের রচেস্টার বিশ্ববিদ্যালয়ের রিসার্চ টিম ফ্যাবিওকে একটি প্রস্তাব দেয়। মিউজ়িকের সাহায্যে গবেষণামূলক সার্জারি করবেন তারা। মাথার যে অংশে মিউজ়িক কাজ করে, সার্জারি চলাকালীন সেই অংশ নিয়েই গবেষণা হবে। যেহেতু মিউজিক নিয়ে গবেষণা তাই চিকিৎসকদের প্রস্তাবে রাজি হয়ে যান ড্যান।

চিকিৎসকদের কথা মতো অপারেশনের সময় মস্তিষ্ককে সচল রাখার জন্যই মূলত ড্যান স্যাক্সোফোন বাজাতে থাকেন। তবে অপারেশন চালানোর সময় যাতে বেশি চাপ নিতে না হয় সেজন্য ড্যানকে কম দমের একটি মিউজিক বাজানোর পরামর্শ দেওয়া হয়। চিকিৎসকদের কথা অনুযায়ী অল্প শ্বাস ব্যবহার করে একটি সুর বাজান ড্যান।

সফল অপারেশনের পর দারুণ উচ্ছ্বসিত ড্যান। এখন আগের মতোই স্বাভাবিকভাবে স্যাক্সোফোন বাজাতে পারছেন তিনি।

ভিডিও:

সূত্র: ইউএসএ টুডে

প্রিয় সংবাদ/মিজান