(প্রিয়.কম) মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার কাটাখালি ভিটিশিল মন্দির বারেক ল্যাংটার মাজারে দুই নারীকে গলা কেটে হত্যার মামলায় দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- মাজারের খাদেম মাসুদ কোতয়াল(৫৫) এবং এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা মো. বাবু(২৫)।

১৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার মুন্সীগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসাইন এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

প্রিয়.কম-কে তিনি জানান, নিহত তাইজুন নেছার ছেলে মো. কফিল উদ্দিন বাদী হয়ে অজ্ঞাত পরিচয় কয়েকজনকে আসামি করে মামলা দায়েরের পরে ১৩ সেপ্টেম্বর বুধবার রাত ১১টার দিকে দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ১৩ সেপ্টেম্বর বুধবার উপজেলার কাটাখালির ভিটিশীল মন্দির এলাকার বারেকের ন্যাংটার মাজার থেকে আমেনা বেগম(৬০) এবং তাইজুন খাতুন(৪৮) নামে দুই নারীর গলা কাটা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ। এ ঘটনায় অজ্ঞাতদের আসামি করে মামলা দায়ের করেন নিহত তাইজুন খাতুনের ছেলে কফিল উদ্দিন। 

আমেনা বেগম সদর উপজেলার আধেরা ইউনিয়নের ঝাপটা গ্রাম এবং তাইজুন নেছা ওই ইউনিয়নের বকচর গ্রামের বাসিন্দা। মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ময়নাতদন্ত শেষে পরিবারের কাছে তাদের মরদেহ হস্তান্তর করা হয়।

এর আগে গত ১৬ আগস্ট বুধবার রাতের নোয়াখালীর সোনাইমুড়ির হাটগাঁও গ্রামের আফজাল পাটোয়ারী মাজারের এক খাদেমকে কুপিয়ে ও গলা কেটে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

অার ২০১৫ সালের ১০ নভেম্বর রাতে স্থানীয় বাজারে অবস্থিত নিজের ওষুধের দোকান থেকে বাড়ি ফেরার পথে মাজারের খাদেম ও ঔষধ ব্যবসায়ী রহমত আলীকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে মাথায় এবং ঘাড়ে কুপিয়ে হত্যা করে দুর্বৃত্তরা।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন