(প্রিয়.কম) মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে পবিত্র কোরআন শিক্ষার একটি স্কুলে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে ২৩ শিক্ষার্থী ও দুই তত্ত্বাবধায়কের মৃত্যু হয়েছে। তিনতলা স্কুলভবনের সর্বোচ্চ তলায় এই অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ১১ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

১৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে (স্থানীয় সময়) ‘দারুল কোরআন ইত্তিফাকিয়াহ’ নামে একটি তাহফিজ বোর্ডিং স্কুলে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটে বলে কুয়ালালামপুর ফায়ার সার্ভিসের এক বিবৃতিতে বলা হয়েছে।

ফায়ার সার্ভিসের পরিচালক খিরুদিন দিরাহমানের বরাত দিয়ে বার্তা সংস্থা এএফপি জানিয়েছে, তিন তলা ভবনের উপরের তলায় শোয়ার ঘর থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। ভয়াবহ এই অগ্নিকাণ্ডে ২৩ শিক্ষার্থী ও দুই তত্ত্বাবধায়কের মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে।

তিনি আরও জানান, গত ২০ বছরের মধ্যে সবচেয়ে মারাত্মক এ অগ্নিকাণ্ডে আহত সাতজনকে নিকটতম একটি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। আর ১১ জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে। আগুনের কারণ অনুসন্ধানের চেষ্টা চলছে।

উল্লেখ্য, তাহফিজ স্কুলগুলোতে সাধারণত ৫ থেকে ১৮ বছর বয়সী শিক্ষার্থীরা কোরআন শিক্ষা নেয়। এই স্কুলগুলো ধর্মবিষয়ক অধিদফতরের নিয়ন্ত্রণাধীন।

মালয়েশিয়ার স্থানীয় সংবাদমাধ্যমগুলোর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৫ সাল থেকে এ পর্যন্ত দেশটির বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে অন্তত ২০০ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে।

প্রিয় সংবাদ/শিরিন