(প্রিয়.কম) রোহিঙ্গাদের ওপর দমন নিপীড়নের অভিযান চলাকালেই দেশটিতে সফর করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি মিয়ানমারকে সমর্থন জানিয়ে এসেছিলেন। এ ছাড়া শরণার্থী হিসেবে ভারতে অবস্থান করা ৪০ হাজার রোহিঙ্গাকে ফেরত পাঠানোর উদ্যোগ নিচ্ছে দেশটি। তবে এবার মিয়ানমার সেনাবাহিনীর নির্যাতনের হাত থেকে বাংলাদেশে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণ সাহায়তা পাঠিয়েছে ভারত। 

১৪ সেপ্টেম্বর বৃহস্পতিবার চট্টগ্রাম শাহ আমানত আর্ন্তজাতিক বিমানবন্দরে ভারতীয় বিমান বাহিনীর একটি বিশেষ বিমানে প্রথম দফায় ৫৩ মেট্রিক টন ত্রাণ দিয়েছে দেশটি। প্রথম চালানে চাল, ডাল, বিস্কুট, লবণ, চিনি, সাবান, মশারি ও গুঁড়ো দুধসহ অন্যান্য পণ্য রয়েছে। এ ত্রাণ সহায়তার নাম দেয়া হয়েছে ‘অপারেশন ইনসানিয়াত’।

বাংলাদেশে নিযুক্ত ভারতের রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের কাছে আনুষ্ঠানিকভাবে ত্রাণ হস্তান্তর করেন। এ সময় হর্ষবর্ধন শ্রিংলা বলেন, ’বাংলাদেশের মানবিক প্রচেষ্টায় সমর্থন হিসেবেই এ ত্রাণ পাঠানো হয়েছে।’

এটিকে মহৎ উদ্যোগ অভিহত করে তিনি বলেন, ‘ভারত বাংলাদেশের বন্ধু হিসেবে পাশে দাঁড়িয়েছে।’

ভারতীয় দূতাবাস সূত্রে জানা যায়, রোহিঙ্গাদের জন্য পাঠানো ত্রাণে বিভিন্ন পণ্য দিয়ে ১৫ কেজি করে প্যাকেট করা হয়েছে। ধারাবাহিকভাবে সাত হাজার টন ত্রাণ পাঠানো হবে। 

প্রিয় সংবাদ/শান্ত