(প্রিয়.কম) সুইডিশ টেলিযোগাযোগ যন্ত্রাংশ নির্মাতা প্রতিষ্ঠান এরিকসন বাংলাদেশের গুলশানস্থ কার্যালয়ে বিগত ২৪ ঘন্টা ধরে চলমান অনশন ধর্মঘটে অংশ নেওয়া কর্মীদের মধ্যে দুই কর্মী অসুস্থ হয়ে পড়েছেন। তাদেরকে বর্তমানে স্যালাইন দিয়ে রাখা হয়েছে। 

আজ ২৯ আগষ্ট মঙ্গলবার সন্ধ্যা সাড়ে সাতটার দিকে এরিকসন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন অব বাংলাদেশের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান প্রিয়.কম-কে বিষয়টি নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, বর্তমানে এরিকসনের কার্যালয়ে তৃতীয় তলায় একটি রেস্ট রুমে ওই অসুস্থ দুজনকে স্যালাইন দিয়ে রাখা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরের দিকে অনশন ধর্মঘট চলমান অবস্থায় ওই দুজন অসুস্থ হয়ে যান বলে জানান এই ইউনিয়ন নেতা। 

আসাদুজ্জামান আরও বলেন, আমরা আজ সারাদিন ধরেও কর্মকর্তাদের সাথে কথা ব্লার চেষ্টা চালিয়েছি। তারা কোনভাবেই আমাদের সাথে কথা বলছেন না। অনশন শুরু হয়েছে ২৪ ঘন্টা কিন্তু এখনও তাদের পক্ষ থেকে কেউ আমাদের দেখতে আসেনি।

এসময়, অন্যান্য মানবাধিকার সংস্থাগুলোকে এগিয়ে আসার জন্য আহ্বান জানান তিনি। 

জানা যায়, গতকাল সোমবার সকালে ১০টা থেকে এই অনশন ধর্মঘট শুরু হয়। এই বিষয়ে ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক লুৎফর রহমান বলেন, আমরা টেলিকম অপারেটরসহ অন্যান্য প্রতিষ্ঠানের মতো স্বেচ্ছা অবসর স্কিম বা ভিআরএস সুবিধা দাবি করেছিলাম। এটা নিয়ে তারা আমাদেরকে আজ সিদ্ধান্ত জানাবেন বলেছিলেন। কিন্তু আজ তারা কেউ অফিসে আসেননি। আর এই বিষয় নিয়ে যতক্ষণ না এরিকসনের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা আমাদের সাথে বসছে, ততক্ষণ এই অনশন ধর্মঘট চলবে। 

প্রসঙ্গত, গত ১৮ আগস্ট বিনা নোটিশে এবং কোনোরকম বাড়তি সুবিধা ছাড়াই ইমেইলের মাধ্যমে প্রায় ৬০ জন কর্মীকে চাকরিচ্যুত করে এরিকসন। যার মধ্যে ৫০ জনই আবেদনকৃত এরিকসন এমপ্লয়িজ ইউনিয়ন অব বাংলাদেশের সদস্য।

 প্রিয় টেক/মিজান