(প্রিয়.কম): ভারত আমাদের প্রতিবেশী দেশ হবার কারণে আমাদের অনেকের কাছেই দেশের বাইরে যাবার কথা আসলে ভারতেই যাওয়া হয়। ভারতীয় ভিসার ব্যবস্থা আজকাল অনেকটাই সহজ করেছে, তারপরেও কিছু বিষয় থেকেই গেছে যেগুলো আপনাকে সমস্যায় ফেলতে পারে। সেগুলোর একটা হল ভারতে কোন স্থানীয় রেফারেন্স কিংবা ঠিকানা।
 
অনলাইনে ফর্ম ফিল আপ করার সময় সেখানে একটি স্থানে ভারতে আপনার কোন পরিচিত ব্যক্তি আছে কি না, কিংবা আপনার কোন হোটেল বুক করা আছে কী না তা জানতে চাওয়া হয়। এই জিনিসটা দুবার জানতে চাওয়া হয়।
 
কারও কারও ভারতে চেনা জানা মানুষ বা বন্ধু থাকে। অনেকেরই আত্মীয় স্বজন থাকেন। এর কোনটাই যাদের নেই, তাদের জন্য উপায় হল হোটেল বুকিং দিয়ে সেই তথ্য ভিসা ফর্মে দেয়া। অনেকেই যেটা করেন, তা হল হোটেল বুকিং না দিয়েই যে কোনো একটা হোটেল এর তথ্য দিয়ে দেন। এটা করলে সমস্যা হতে পারে। কোনো কারণে ভিসা অফিসার যদি মনে করেন, তিনি চেক করবেন আপনার বুকিং আছে কি না, তখন তিনি ফোন বা ইমেইল করে খোঁজ নিলেই ধরা পড়বে যে ফর্মে উল্লেখ করা হোটেলে আপনার কোনো বুকিং নেই। তাই শুধু ভারতে নয়, যে কোনো দেশে ভিসার আবেদন করার সময় হোটেল বুকিং সংক্রান্ত তথ্য দেবার সময় সঠিক তথ্য ব্যবহার করাই ভালো।
 
আজকালকার উন্নত যোগাযোগের যুগে অনলাইনে হোটেল বুকিং দেয়া কোন সমস্যাই নয়। হোটেল.কম, বুকিং.কম এর মত সাইটগুলো থেকে আপনি অনায়াসেই হোটেল বুকিং দিতে পারবেন। এবারে হয়ত ভাবছেন যে অনলাইনে হোটেল বুকিং দিতে তো ক্রেডিট কার্ড লাগে, সেটাই বা পাই কোথায়!
 
হোটেল.কম বা বুকিং.কম এর মত সাইটগুলোতে অনেক হোটেল থাকে যেগুলো বুকিং দেয়া যায় কোন রকম ক্রেডিট কার্ড ছাড়াই। আপনি সেরকম একটি হোটেল বাছাই করবেন এবং বুকিং দিয়ে সেই তথ্য আপনার ভিসায় ব্যবহার করবেন।
 
এছাড়াও যদি অনলাইনে খরচ করার জন্য ক্রেডিট কার্ড দরকার হয়, তাহলে ক্রেডিট কার্ড এর ঝামেলা ছাড়াই ক্রেডিট কার্ড এর সুবিধা পেতে ব্যবহার করতে পারেন ইবিএল এর এ্যাকুয়া কার্ড। এটি একটি প্রিপেইড মাস্টারকার্ড, যেটায় আপনি নির্দিষ্ট পরিমাণ টাকা বা ডলার লোড করবেন এবং অনলাইনে টাকা বা ডলারে পেমেন্ট এর কাজগুলো করতে পারবেন।
 
যেসব দেশে ভিসার আবেদন করার সময় ট্রাভেল আইটেনিয়ারি চায়, সেগুলোতে আবেদন করার সময়ও এই কৌশল ব্যবহার করে বিনে পয়সায় কিংবা বিনে ক্রেডিট কার্ডে হোটেল বুকিং দিতে পারবেন এবং সেই তথ্যগুলো ভিসা আবেদনের সাথে যুক্ত করে ভিসা পাবার সুযোগটা বাড়িয়ে নিতে পারবেন।
 
সম্পাদনা: ড. জিনিয়া রহমান।
ভ্রমণ সম্পর্কিত আরও জানতে চোখ রাখুন আমাদের প্রিয় ট্রাভেলের ফেসবুক পাতায়। 
ভ্রমণ নিয়ে আপনার যেকোনো অভিজ্ঞতা, টিপস কিংবা লেখা পোস্ট করুন আমাদের সাইটে । আপনাদের মতামত জানাতে ই-মেইল করতে পারেন travel@priyo.com এই ঠিকানায়।