(প্রিয়.কম) ডায়েট করছেন? শুকাতে চাচ্ছেন? কিন্তু সবসময় খিদে থাকে পেটে! ভাবছেন এমন কোন খাবার কি নেই যা ইচ্ছামতো খেলে পেটও ভরবে আবার ওজন নিয়েও চিন্তা করতে হবে না! আপনার জন্যে ভালো খবর হচ্ছে, এমন দারুণ কিছু খাবার রয়েছে যা আপনি আপনার মনের খুশি মত খেতে পারবেন বাড়তি ওজনের দুশ্চিন্তা ছাড়াই।

ভাবছেন যে এমন খাবার বাজারে কিনতে পাওয়া যাবে কি? বাজারে তো বটেই, খাবারের নাম দেখলেই বুঝতে পারবেন আপনার ঘরেও রয়েছে তার মধ্যে অনেকগুলো! এই ফিচার থেকে জেনে নিন এমন কিছু খাবারের নাম যা ইচ্ছামতো খেলেও ওজন বাড়ার ভয় থাকবে না।

১/ খই অথবা পপকর্ন

আপনি যদি কোন মাখন এবং চিনি ছাড়া পরিমাণ এবং স্বাদমতো লবণ দিয়ে খই ভেজে থাকেন, তবে কোন দুশ্চিন্তা ছাড়াই ইচ্ছামতো খেতে পারবেন মজাদার পপকর্ন! এমনভাবে ভাজা এক কাপ পপকর্নে মাত্র ৩১ ক্যালরি থাকে।

২/ বেগুন

নামটি শুনে কেউ হয়তো চোখমুখ কুঁচকে ফেলবেন, অথবা খুশি হয়ে যাবেন। তবে অ্যালার্জির সমস্যা যাদের নেই তারা নিশ্চিন্তে বেগুন খেতে পারেন কম তেলে ভাজি করে অথবা ভর্তা করে। আর যদি পশ্চিমা ধাঁচে গ্রিল অথবা বেক করে খেতে পারেন তবে তো কথাই নেই! এইভাবে বেগুন খেলে আপনি মাত্র ২৪ ক্যালরি গ্রহণ করবেন!

৩/ কমলা 

ডায়েট মেনে চলার সময়ে বেশীরভাগ মিষ্টি ফল খাওয়া থেকেই বিরত থাকতে হয়। তবে সাইট্রাস ঘরানার ফল সেক্ষেত্রে অনেকটা ছাড় পায়। এমন ধরণের ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে আঁশ এবং ভিতামিন-সি যা আপনার শরীরের জন্য উপকারী। কমলা এবং গ্রেপফ্রুট তাই আপনার ত্বক, চুল এবং পরিপাকের জন্য দারুণ উপকারী।

৪/ তরমুজ

প্রতিটা বড় পিসে রয়েছে মাত্র ৬০-৭০ ক্যালরি, যার জন্য আপনি চাইলে সারাদিন ধরেই খেতে পারবেন তরমুজ। সুস্বাদু এই ফলে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পানি যা আপনার শরীরের জন্যে খুবই উপকারী।

৫/ শসা

ওজন কমানোর সময়ে এই খাবারটির যেন তুলনা নেই। দারুণ উপকারী এই খাবারটি আপনি চাইলে যত ইচ্ছা খেতে পারেন। ওজন তো বাড়বেই না বরং ওজন কমাতেও সাহায্য করবে আপনাকে।

৬/ বীটরুট

এই খাবারটি অনেকেরই খুব একটা পছন্দের নয়। তবে বীটরুট খুবই উপকারী একটি খাদ্য। চাইলে আপনি সিদ্ধ করে অথবা সালাদের মতো তৈরি করেও খেতে পারেন ইচ্ছামতো।

৭/ ডিম

দিনের যেকোন সময়ে চাইলেই ডিম খেতে পারবেন আপনি। ওজন বেড়ে যাবার ভয় নিয়ে ডিম খাওয়ার কোন প্রয়োজন নেই একেবারেই। তবে অবশ্যই সিদ্ধ ডিম ভাজা ডিমের চাইতে বেশী ভালো।

৮/ আপেল

একটি আপেলে রয়েছে মাত্র ৫০ ক্যালরি। তাই বিকালের দিকে অথবা সকালে নাস্তায় চাইলে মন ভরে আপেল খেতে পারেন আপনি।

৯/ লেটুসপাতা

লেটুসপাতা সাধারণত বার্গার অথবা স্যান্ডউইচের সাথে খেয়েই সকলে অভ্যাস্ত। তবে শুধু লেটুসপাতা অথবা লেটুসপাতার সালাদ বানিয়ে খেতে পারেন আপনি। এক গোছা লেটুসপাতাতে রয়েছে মাত্র ৩ ক্যালরি!

১০/ ফুলকপি, বাঁধাকপি এবং ব্রকলি

এই তিনটি সবজিই ওজন কমাতে খুব দারুণভাবে সাহায্য করে থাকে। বাঁধাকপির একটা অংশতে থাকে মাত্র ৭ ক্যালরি। আপনি চাইলে এই সবজী হালকা সিদ্ধ করে অথবা খুব কম তেলে ভাজি করে খেয়ে নিতে পারেন। তবে এক সপ্তাহে কয়েক বারের বেশী নয়।

১১/ স্ট্রবেরী

স্ট্রবেরী আপনার পরিপাকক্রিয়ার জন্যে খুবই উপকারী এবং আপনার কার্ডিওভাস্কুলার সিস্টেমের জন্য জন্যে দারুণভাবে কাজ করে থাকে।

ওজন কমানোর প্রক্রিয়াটি খুব একটা কষ্টকর প্রক্রিয়া নয় যদি আপনি সঠিক খাবারগুলো বেছে নিতে পারেন। আপনার প্রতিদিনের এবং প্রতিবেলার খাবারে এমন সকল খাবারের উপাদান রাখার চেষ্টা করুন যা কিনা আপনার শরীরের জন্য উপকারী এবং আপনার ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখতেও সাহায্য করবে। উপরের এই খাবারগুলো আপনি ইচ্ছামতো খেতে পারবেন। তাতে করে আপনার ওজন বাড়বে না একটুও।

সূত্র: Bright Side

সম্পাদনা: কে এন দেয়া