(প্রিয়.কম) বাসায় কিংবা অফিসে সারাদিন বসে কাজ করতে হচ্ছে, খুব একটা হাঁটাচলা হচ্ছে না বলে খেয়াল করে দেখলেন পেটের মেদ বেড়ে যাচ্ছে অনেক বেশী। অনেকের ক্ষেত্রেই যে সমস্যাটা দেখা দেয়, ওজন খুব বেশী না হলেও পেটের মেদ খুব বাড়াবাড়ি হয়ে বেড়ে গেছে। সময়ের অভাব, সারাদিনের কাজের ক্লান্তিতে সেভাবে শরীরচর্চা করার সময় অথবা ইচ্ছা কোনটাই আর হয়ে ওঠে না আপনার।  

সেক্ষেত্রে খুব কম সময়ের মাঝে অল্প কিছু উপাদান দিয়েই চমৎকারভাবে তৈরি করে নিতে পারবেন পেটের মেদ কমানোর জন্য দারুণ এই ছয়টি পানীয়, যা আপনার পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করবে জাদুকরীভাবে!

১/ ফ্লেভারড পানি

আপনি যখন শুকানোর জন্য চেষ্টা করছেন তখন বেশী করে পানি খাওয়াটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ! অনেক সময় শুধু পানি খেতে বিরক্ত লাগে। সেক্ষেত্রে আপনি চাইলে পানির সাথে আপনার  কোন পছন্দের ফলের টুকরা অথবা কিছু পরিমাণে শসা টুকরা করে কেটে মিশিয়ে নিতে পারেন। এতে করে পানিতে সেই ফলের স্বাদ চলে আসে, পানি খেতে আর বিরক্ত লাগে না।

২/ তরমুজের স্মুদি

চিনি ছাড়া যেকোন ধরণের শরবত অথবা স্মুদিই আপনার শরীরের জন্য ভালো। আর সেটা যদি হয় তরমুজের স্মুদি তাহলে তো কথাই নেই! তরমুজ খুব কম ক্যালরির একটি  ফল যার থেকে তৈরি করা স্মুদিও খুব কম ক্যালরির হয়ে থাকে। তরমুজের স্মুদি বানাতে পছন্দসই তরমুজের টুকরা, ঠান্ডা পানি, লবণ, ধনিয়ার পাতা এবং বরফ নিয়ে ব্লেন্ড করে নিন। তরমুজ যে শুধুই শরীরে পানির ঘাটতি কমিয়ে থাকে সেটাই নয়, তরমুজে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে পুষ্টি এবং ক্যান্সার প্রতিরোধক লাইকোপেন। সাথে খুব পরিচিত এমিনো এসিড যা কিনা আরজিনিন (Argenine) নামে পরিচিত।এক গবেষণায় দেখা গেছে যে, আরজিনিন শরীরের বাড়তি মেদ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করে।

৩/ আইসড পিপারমিন্ট টি

বরফ দেওয়া ঠাণ্ডা ঠাণ্ডা লেবু এবং পুদিনা পাতার মিশেলে তৈরি এই আইস পিপারমিন্ট টি যেমন আপনার তেষ্টা মেটাবে, তেমনই আপনার বাড়তি মেদ কমিয়ে ফেলতে সাহায্য করবে দারুণভাবে। এই পিপারমিন্ট টি একে তো আপনার পেটের মেদ কমাতে সাহায্য করেই, সেই সাথে এই পানীয় সাহায্য করে ভারী খাবার দ্রুত হজম করে ফেলতেও।

৪/ আনারসের ফ্রাপ্প্যে

টক মিষ্টি পাকা আনারস খেতে কে না ভালোবাসে! আর সেই আনারস দিয়ে যদি মজাদার ফ্রাপ্প্যে বানানো হয় তাহলে কথাই নেই। পছন্দমতো কয়েক টুকরো আনারসের সাথে হালকা লবণ, বিট লবণ এবং অর্ধেকটা কাঁচামরিচ দিয়ে ব্লেন্ড করলেই পেয়ে যাবেন আপনার পেট কমানোর জন্য দারুণ সুস্বাদু এবং মজাদার আনারসের ফ্রাপ্প্যে! আনারসের রয়েছে ব্রোমেলাইন নামক একটি এনজাইম যা প্রোটিন কণাকে ভেঙে ফেলতে এবং খাদ্য দ্রুত পরিপাক হতে সাহায্য করে থাকে।

৫/ গ্রীন টি

গ্রীন টির কথা আলাদা করে আর কিছু বলার প্রয়োজনীয়তা নেই বলা চলে। শুকাতে চাইলে এবং পেটের মেদ কমাতে চাইলে গ্রিন টি খাওয়ার বিকল্প নেই একেবারেই। গ্রিন টি শুধুই যে মেদ কমাতে সাহায্য করে তাই কিন্তু নয়, গ্রিন টি ক্যান্সারের ঝুঁকি কমাতে এবং হৃদরোগের ঝুঁকি কমাতেও সাহায্য করে থাকে।

মূলত ওয়ার্ক আউটের আগে অথবা অ্যারোবিক এক্সারসাইজের আগে এক কাপ গ্রিন টি পান করলে সেক্ষেত্রে খুব ভালো কাজে দেয়।

৬/ ডার্ক চকলেট শেইক

নামটা পড়েই নিশ্চয় ভ্রু কুঁচকে ফেলেছেন এবং ভাবছেন, এটা কীভাবে সম্ভব! তবে সত্যিটা হচ্ছে এটাও সম্ভব এবং এটা সত্যি। চকলেট, তবে অবশ্যই ডার্ক চকলেট মেদ কমাতে দারুণভাবে সাহায্য করে থাকে। মূলত ডার্ক চকলেট ক্ষুদা কমাতে এবং খাওয়ার প্রতি আগ্রহ কমাতে সাহায্য করে থাকে। প্রায় ৪০০ ক্যালরির এই শেইক শুধুমাত্র নাস্তা নয় একবেলার খাবার হিসেবেও খেয়ে ফেলতে পারেন আপনি।

এই শেইক বানাতে আপনার লাগবে আধা কাপ সয়ামিল্ক, টকদই, ১/৪ কাপ ডার্ক চকলেট চিপস এবং এক কাপ স্ট্রবেরি কুঁচি। সাথে অবশ্যই বেশী করে বরফ নিতে ভুলবেন না। সকল উপাদান একসাথে নিয়ে ভালো করে ব্লেন্ড করে নিলেই হয়ে যাবে আপনার পেট মেদ কমানোর জন্য মজাদার ডার্ক চকলেট স্মুদি।  

 সূত্র: Rodale wellness.

সম্পাদনা : রুমানা বৈশাখী